নারী-পুরুষ ভেদাভেদ মুছে ফেলার পথে লোকার্নো উৎসব

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২২, ১২:৩৬ অপরাহ্ণ

লোকার্নো চলচ্চিত্র উৎসব বসে সুইজারল্যান্ডে।

সোনার দেশ ডেস্ক :


সুইজারল্যান্ডে আয়োজিত ‘লোকার্নো ফিল্ম ফেস্টিভাল’র আগামী বছরের আসর থেকে প্রবর্তন করা হচ্ছে লিঙ্গ-নিরপেক্ষ পুরস্কার।
বুধবার বিনোদন সাময়িকী ভ্যারাইটি জানায়, বার্লিন চলচ্চিত্র উৎসবের পদাঙ্ক অনুসরণ করেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্বতন্ত্র সিনেমার জন্য নিবেদিত এই বৈশ্বিক চলচ্চিত্র উৎসব কর্তৃপক্ষ।

বার্লিন চলচ্চিত্র উৎসবে ২০২১ সাল থেকে লিঙ্গ নিরপেক্ষ অভিনয় পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে।
বার্লিনে একটি পুরস্কার থাকলেও লোকার্নো চলচ্চিত্র উৎসবে দুটি বিভাগে লিঙ্গ নিরপেক্ষ সেরা অভিনয় পারদর্শিতার পুরস্কার দেওয়া হবে। উৎসবের মূল প্রতিযোগিতা বিভাগের জন্য এবং সিনেস্তি দেল প্রেসেন্তে প্রতিযোগিতা বিভাগে প্রথম ও দ্বিতীয় সেরা কাজের জন্য।

বার্লিন উৎসবে অভিনেতা ও অভিনেত্রীর দুটি পুরস্কারের পরিবর্তে এখন শুধু সেরা অভিনয় পারদর্শিতা ও সেরা পার্শ্ব অভিনয় পারদর্শিতার জন্য একটি করে পুরস্কার দেওয়া হয়।

লোকার্নোর শিল্প পরিচালক গিওনা আ নাসারো এক বিবৃতিতে বলেন, “আমরা বিশ্বাস করি, আমরা যে পথ বেছে নিয়েছি, তা ব্যক্তি শ্রেণিভেদের ঊর্ধ্বে উঠে মেধা ও সৃষ্টিশীলতাকে তুলে ধরার আমাদের উদ্যোগকে আরও মজবুত করে তুলবে। বিশ্ব এখন যে একটি পথ ধরে এগিয়ে যাচ্ছে তা অবশ্যই ‘নন-বাইনারি’ (নারী-পুরুষ ভেদ বিবর্জিত)।”

লোকার্নো উৎসবের প্রেসিডেন্ট মার্কো সোলারি বলেন, “সভাপতি হিসেবে আমি আর্টিস্টিক ডিরেকটর ও তার দলের দেওয়া এই প্রস্তাবকে স্বাগত জানাই, যা স্পষ্টতই বর্তমানের পরিবর্তিত সংবেদনশীলতার নিরিখে একটি আবশ্যিক পদক্ষেপ।”

লোকার্নো চলচ্চিত্র উৎসবের পরের আসর আয়োজন করা হবে ২০২৩ সালের ২ থেকে ১২ অগাস্ট পর্যন্ত।
তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ