নিখোঁজ শিশুর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার, গ্রেফতার ১

আপডেট: ডিসেম্বর ১, ২০২২, ১১:১৭ অপরাহ্ণ

আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি:


নওগাঁর আত্রাইয়ে নিখোঁজের ২১দিন পর নদী থেকে শিশু ইব্রাহিম (৬) এর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। ইব্রাহিম উপজেলার শ্রীধরগুড়নই গ্রামের হযরত আলীর ছেলে।

বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) আনুমানিক ভোর ৫টায় শিশুর হত্যাকারি বুলবুল সোনারের তথ্যের ভিত্তিতে উপজেলার বিশা ইউনিয়নের শ্রীধরগুরনই গ্রামের পারাপার ঘাটের দক্ষিণ পার্শে থেকে ওই শিশুর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। উপজেলার শ্রীধরগুরনই গ্রামের হযরত আলীর ছেলে ইব্রাহিম গত ১০ নভেম্বর নিখোঁজ হয়। এ ঘটনায় নিখোঁজ ইব্রাহিমের বাবা বাদী হয়ে আত্রাই থানায় একটি নিখোঁজ ডায়েরী করেন।

আত্রাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তারেকুর রহমান সরকার পুলিশ সুপার নওগাঁর সংবাদ সম্মেলনের বরাত দিয়ে বলেন, ঘটনার পর থেকে বিভিন্ন নাম্বার থেকে ছেলেকে ফেরত দেয়ার কথা বলে শিশুটির পরিবারের কাছে টাকা দাবী করে আসছিলো বুলবুল সোনার। ফোন নাম্বারের সূত্র ধরে নওগাঁ পুলিশ সুপারের পরামর্শ্বে গত ২৮ নভেম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন মামলায় বুলবুলকে আটক করে ওই দিন থানায় রিমান্ডে আনা হয়। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে বুলবুল জানায়, তার দোকানে বেলুন কিনতে যায় ইব্রাহিম। ৪/৫ টি বেলুন নিয়ে ফাটিয়ে আবার বেলুন সিতে চেয়ে জোরাজোরি করে বিরক্ত করলে ইব্রাহিমের গলা চেপে ধরে সে। কিছুপর ইব্রাহিম মাটিতে লুটিয়ে পরলে মারা গেছে ভেবে তার দোকানের বস্তায় ভরে পাার্শ্বে ছাইয়ের মধ্যে পুঁতে রাখে ইব্রাহিমকে। ঘটনার ৩/৪ দিন পর ইব্রাহিমের মরদেহ ছাইয়ের ঢিবি থেকে নদীতে পানির মধ্যে পুঁতে রেখে ব্লক দ্বারা চাপা দেয় বুলবুল।