নিষিদ্ধ হতে পারেন সানি

আপডেট: জানুয়ারি ২৫, ২০১৭, ১২:০৪ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



আরাফাত সানি আদালাতে দোষী প্রমাণিত হলে তাকে ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করা হতে পারে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড সভাপতি নাজুমল ইসলাম।
গত রোববার আইসিটি আইনের মামলায় গ্রেপ্তার করা হয় সানিকে। বাঁহাতি স্পিনারের বিরুদ্ধে হয়েছে যৌতুকের মামলাও।
এর আগে শাহাদাত হোসেনের বিরুদ্ধে গৃহকর্মী নির্যাতনের মামলা হওয়ার পরপরই এই পেসারকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করেছিল বিসিবি। পরে আদালত মামলা থেকে বেকসুর খালাস দেয় এই পেসারকে। অবশ্য তার আগেই বিসিবির নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্তি পান তিনি। এর আগে জেলে যেতে হয়েছিল পেসার রুবেল হোসেনকেও।
মঙ্গলবার বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান জানান, দোষী কোনো ক্রিকেটারের পাশে তারা থাকবেন না। কেউ অপরাধ করলে শাস্তি পেতেই হবে। “এ নিয়ে তিনজন খেলোয়াড় জেলে গেছে, এটা আমাদের ভাবনায় আছে। যারা অন্যায় করেছে তারা শাস্তি পাবে, এক্ষেত্রে বিসিবি কোনো ছাড় দেয়নি। কেউ যদি এই ধরনের কাজ করে দোষী হয় অবশ্যই সে নিষিদ্ধ হবে। অবশ্যই বিষয়টি আগে আদালতে প্রমাণ হতে হবে।” ক্রিকেটারদের সুশৃঙ্খল রাখতে বিসিবির উদ্যোগের কথাও জানান নাজমুল হাসান। “একটা ব্যাপার বলতে পারি, এই জিনিস বিসিবি কখনও বরদাস্ত করেনি, করবেও না। শৃঙ্খলাভঙের জন্য বিসিবি অনেক টাকা পর্যন্ত জরিমানাও করেছে। এক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতিতে আমরা অটল থাকবো।”
বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ চলার সময় শৃঙ্খলাভঙ্গের জন্য আল আমিন হোসেন ও সাব্বির রহমানকে বিশাল অঙ্কের জরিমানা করা হয়েছিল।-বিডিনিউজ