নীরবে সবার ওপরে উঠে এলেন মিঠুন

আপডেট: নভেম্বর ২৫, ২০১৬, ১১:১১ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক
ভালো খেলছে, কিন্তু জিততে পারছে না-বিপিএলে রাজশাহী কিংসকে এমন অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হতে হয়েছে বেশ কবার। গতকাল অবশ্য তাদের হতাশ হতে হয় নি। চট্টগ্রামে নিজেদের শেষ ম্যাচটা জয় দিয়ে শেষ করেছিল, ঢাকা-পর্বেও জয়ের ধারা অব্যাহত থাকল রাজশাহীর। পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ দল রংপুর রাইডার্সকে ১২ রানে হারিয়ে শেষ চারে যাওয়ার আশাটা টিকিয়ে রাখল তারা। হেরে গেলেও এই ম্যাচেও আলো ছড়িয়েছেন তরুণ মোহাম্মদ মিঠুন।
সর্বশেষ এশিয়া কাপ ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে মিঠুনের অন্তর্ভুক্তি নিয়ে অনেক কথা হয়েছিল। তা হওয়ার কারণও ছিল। এশিয়া কাপে ৪ ম্যাচে মিঠুনের রান ৪৮ আর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ৬ ম্যাচে ৩৭। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত সংস্করণে নিজেকে প্রমাণের মঞ্চ হিসেবে এবার বিপিএলকেই যেন বেছে নিয়েছেন মিঠুন। অনেকটা নীরবে-নিভৃতে দুর্দান্ত গতিতে এগিয়ে চলেছেন রংপুরের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। ৬২, ৪৫*, ৪৯*-এর পর গতকাল অপরাজিত ৩৬ বলে ৬৪ রান করে। কিন্তু দল হেরে যাওয়ায় তার লড়াইটা বৃথাই গেছে। তবে গতকাল সন্ধ্যার ম্যাচের আগ পর্যন্ত ৭ ম্যাচে ২৪৭ রান করে ব্যাটসম্যানদের মধ্যে শীর্ষে উঠে এসেছেন মিঠুন।
রাজশাহীর দেওয়া ১৬৩ রানের লক্ষ্যটা তাড়া করতে গিয়ে শুরু থেকেই কিছুটা ধীরে এগিয়েছে রংপুরের দুই ওপেনার। মারকুটে ব্যাটসম্যান আহমেদ শেহজাদ করেছেন ২৬ বলে ১৮ রান! প্রথম ১০ ওভারে রংপুর তোলে ১ উইকেটে ৬১ রান। ধীর-লয়ে এগোনোর মূল্যই শেষ পর্যন্ত তাদের দিতে হয়েছে। হাতে উইকেট থাকার পরও তারা লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারে নি। মিঠুনই যা একটু রংপুরকে আশা দেখিয়েছেন।
রাজশাহী অবশ্য শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করেছে। তবে ১১তম ওভারে ২/৭৫ থেকে হঠাৎই ৪/৭৫ হয়ে যাওয়ায় রানের চাকা কিছুটা শ্লথ হয়ে যায় তাদের। তবে শেষ দিকে স্যামির ঝড়ে চ্যালেঞ্জিং স্কোর পায় তারা। রাজশাহী অধিনায়ক অপরাজিত থাকেন ১৮ বলে ৪৪ রান করে। তাই ম্যাচের আসল নায়ক তিনি। তবে এবারের বিপিএলে মিঠুনকে এভাবে পাওয়া বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য সুখবর।-প্রথম আলো অনলাইন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ