নেই খাবার, দু’দিন ধরে দুর্গম পাহাড়ের খাঁজে আটকে যুবক! উদ্ধার করল সেনা

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৯, ২০২২, ৬:২৬ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক:


সঙ্গে ছিল না খাবার, শীতবস্ত্র, ওই অবস্থাতেই সোমবার থেকে কেরলের পালাক্কাড়ের মালামপুঝার একটি পাহাড়ের দুর্গম খাঁজে আটকে ছিলেন এক যুবক। অনেক চেষ্টার পর বুধবার তাঁকে উদ্ধার করতে সক্ষম হল ভারতীয় সেনা।

পাহাড় চড়তে গিয়েই হয় বিপত্তি। তিন দিন আগে দুই বন্ধুর সঙ্গে মালামপুঝার চেরাদ পাহাড়ে উঠছিলেন কেরলের বাসিন্দা যুবক আর বাবু। মাঝপথে হাল ছেড়ে দেন দুই বন্ধু। যদিও শিখরে ওঠার চেষ্টা চালিয়ে যান বাবু একা। কিন্তু একটা সময় পাথরে পা পিছলে যায় তাঁর। নিচেই পড়ে যাচ্ছিলেন। তবে ভাগ্যের জোরে অবধারিত মৃত্যুর হাত থেকে বেঁচে যান। কপাল গুনে একেবারে নিচে না পড়ে মাঝপথে আটকে যান পাহাড়ের একটি ছোট খাঁজে। গত সোমবার থেকে ওভাবেই পাথরের মাঝে আটকে ছিলেন বাবু।

এর মধ্যেই রাজ্য প্রশাসনের তরফে তাঁকে উদ্ধার করতে সাহায্য নেওয়া হয় ভারতীয় সেনার। অবশেষে বুধবার সকালে যুবককে উদ্ধার করতে সক্ষম হলেন সেনা জওয়ানরা। বায়ুসেনার হেলিকপ্টার ও সেনার পর্বতারোহীদের সাহায্য নেওয়া হয় এই বিপজ্জনক উদ্ধার কাজে। গোটা উদ্ধার কাজ তদারকি করেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন।

অবধারিত মৃত্যু থেকে বেঁচে ফিরে হাসি মুখে ভারতীয় সেনাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন আর বাবু। তিনি বলেন, “অনেক অনেক ধন্যবাদ ভারতীয় সেনাকে।” সেনা জওয়ানদের সঙ্গে “ভারতীয় সেনার জয়”, “ভারত মাতা কী জয়” স্লোগান দিতেও দেখা যায় যুবক বাবুকে।

ভারতীয় সেনার এক আধিকারিক এ অরুণ জানান, পাহাড়ের উপর থেকে প্রায় ২৫০ ফুট নিচে নামেন পর্বতারোহণে দক্ষ সেনার দুই আধিকারিক। তাঁরা দড়ির মাধ্যমে বাবুকে সঙ্গে নিয়ে নিরাপদ স্থানে উঠে আসেন। এ অরুণ বলেন, “পাথর, বোল্ডার বা মানুষ, ওইখান পিছলে গেলে একেবারে নিচে পড়ে যাওয়ারই কথা। বাবু অত্যন্ত সৌভাগ্যবান যে সে পাহাড়ের ফাটলে আটকে গিয়েছিল কোনওভাবে।”
তথ্যসূত্রধ সংবাদ প্রতিদিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ