নৌকা প্রার্থীর ছয়কর্মীকে মারধর স্বতন্ত্র প্রার্থী অফিস ভাঙচুর

আপডেট: নভেম্বর ২৬, ২০২১, ৬:০৩ অপরাহ্ণ

মান্দা প্রতিনিধি :


নওগাঁর মান্দায় নৌকা প্রার্থীর কর্মীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী সাইদুর রহমানের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার রাত ১০ টার দিকে উপজেলার কাঁশোপাড়া ইউনিয়নের আন্ধারিয়াপাড়া গ্রামে মারধরের এ ঘটনা ঘটে। আহতদের উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মারপিটে আহত নৌকা প্রার্থীর কর্মীরা হলেন, আব্দুল মতিন (৪০), হেলাল হোসেন (৩৫), হারুন খান (৩৫), ছারেপ সরদার (৪৫), আনোয়ার হোসেন (৩০) ও আবুল কালাম (৩৫)। ঘটনায় কাঁশোপাড়া ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান সাইদুর রহমানসহ ২৯ জনের বিরুদ্ধে মান্দা থানায় মামলা করা হয়েছে।
এদিকে একই রাতে তিনটি নির্বাচনী ক্যাম্প ভাঙচুর করা হয়েছে কুসুম্বা ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ও স্বতন্ত্র প্রার্থী নওফেল আলী মন্ডলের ।

কাঁশোপাড়া ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী আব্দুল খালেক বলেন, বৃহস্পতিবার রাত ১০ টার দিকে আন্ধারিয়াপাড়া এলাকায় প্রচার-প্রচারণার সময় নৌকার ছয়জন কর্মীকে পিটিয়ে জখম করা হয়েছে। স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী সাইদুর রহমানের হুকুমে তাঁর কর্মী-সমর্থকরা এ ঘটিয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।’
তবে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী সাইদুর রহমান এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘মিথ্যা অভিযোগ তুলে আমার ভোটের মাঠ নষ্ট করার অপচেষ্টা করছেন নৌকার প্রার্থী আব্দুল খালেক।’

এদিকে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে উপজেলার কুসুম্বা ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান নওফেল আলী মন্ডলের তিনটি নির্বাচনী ক্যাম্প ভাঙচুর করা হয়েছে। এগুলো হচ্ছে কুসুম্বা মোড়, হাজী গোবিন্দপুর ও কুসুম্বা মালপাড়া। ঘটনায় মান্দা থানায় অভিযোগ করেছেন স্বতন্ত্র প্রাথী নওফেল আলী মন্ডল।
মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিনুর রহমান বলেন, দুটি ঘটনায় অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।