নয়া দিল্লিতে শেখ হাসিনাকে গার্ড অব অনার

আপডেট: এপ্রিল ৯, ২০১৭, ১২:২৩ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


আনুষ্ঠানিক অভ্যর্থনার মধ্য দিয়ে ভারত সফরে দ্বিতীয় দিনের কর্মসূচি শুরু করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
শনিবার সকালে রাষ্ট্রপতি ভবনে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে আনুষ্ঠানিক অভ্যর্থনা জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এ সময় গার্ড অব অনার দেওয়া হয় শেখ হাসিনাকে।
রাষ্ট্রপতি ভবনের অভ্যর্থনাস্থলে সকাল ৯টায় শেখ হাসিনার গাড়ি ঢোকার সঙ্গে রাষ্ট্রপতির গার্ড রেজিমেন্টের অশ্বারোহী দল তা পাহারা দিয়ে অনুষ্ঠান মঞ্চের কাছে নিয়ে যায়।
সেখানে আগে থেকে উপস্থিত নরেন্দ্র মোদী বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানান।
শেখ হাসিনা অনুষ্ঠান মঞ্চে দাঁড়ালে দুই দেশের জাতীয় সঙ্গীত বাজানো হয়। তিনি গার্ড পরিদর্শনের পর মোদীর সরকারের মন্ত্রীদের সঙ্গে পরিচিত হন।
মন্ত্রিসভার সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পল্লী উন্নয়নমন্ত্রী রাম কিরপাল যদব, বিদ্যুৎমন্ত্রী পীযূষ গয়াল, জ্বালানিমন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান, প্রতিমন্ত্রী হংসরাজ গঙ্গারাম আহির, জিতেন্দ্র সিং ও বাবুল সুপ্রিয়।
স্বরাষ্ট্র সচিব জয়শংকর ও সেনাপ্রধান বিপীন রাওয়াতকে এসময় শেখ হাসিনার সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন মোদী। এরপর শেখ হাসিনাও তার সফরসঙ্গী মন্ত্রীদের ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন।
রাষ্ট্রপতি ভবনের এই অনুষ্ঠানের পর রাজঘাটে শেখ হাসিনা মহাত্মা গান্ধীর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
রাজঘাটে পৌঁছলে ফুলের পাপড়ি ছিটিয়ে শেখ হাসিনাকে বরণ করা হয়।
এরপর হায়াদ্রাবাদ হাউজে শীর্ষ বৈঠকে বসবেন শেখ হাসিনা ও মোদী। সেখানে দুই দেশের মধ্যে ৩০টির বেশি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হবে।
চার দিনের এই সফরে শেখ হাসিনা শুক্রবার নয়া দিল্লিতে পৌঁছনোর পর অপ্রত্যাশিতভাবে তাকে অভ্যর্থনা জানাতে বিমানবন্দরে উপস্থিত হন মোদী।
তৃতীয় মেয়াদে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেয়ার পর প্রথম সফরে ভারতের রাষ্ট্রপতি ভবনে থাকছেন শেখ হাসিনা। কোনো সরকার প্রধানের রাষ্ট্রপতি ভবনে থাকা বিরল ঘটনা।
সাড়ে তিনশ সঙ্গী নিয়ে ভারতে গেছেন শেখ হাসিনা, এর মধ্যে আড়াইশ জন ব্যবসায়ীর একটি প্রতিনিধি দল রয়েছেন। সফর শেষে সোমবার তার ফেরার কথা রয়েছে।- বিডিনিউজ