পঙ্গপাল বাহিনী মোকাবিলা করতে পাকিস্তানে জরুরি অবস্থা ঘোষণা

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২০, ১২:৫৩ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


এমনিতেই ভেঙে পড়া অর্থনীতি, জঙ্গি দমনের জন্য আন্তর্জাতিক চাপ, একাধিক অভ্যন্তরীণ সমস্যায় জেরবার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তার উপর গোদের উপর বিষফোঁড়ার মতো তাঁর মাথায় এসে জুটেছে পঙ্গপালের সমস্যা। দেশের প্রধান কৃষি অধ্যুষিত প্রদেশ পাঞ্জাবে ঝাঁকে ঝাঁকে পঙ্গপালের উৎপাতে নষ্ট হচ্ছে খেতের পর খেত শস্য। সমস্যা এতোটাই গভীর যে তা মোকাবিলায় দেশের সরকারকে হস্তক্ষেপ করতে হয়েছে। গত শুক্রবার এব্যাপারে মন্ত্রিসভার সদস্য, পাকিস্তানের চারটি প্রদেশের প্রশাসনিত অফিসার এবং সংশ্লিষ্ট দপ্তরের অফিসারদের সঙ্গে বৈঠক করেন ইমরান। তাঁকে পুরো সমস্যার কথা বিশদে ব্যাখ্যা করেন প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা হাফিজ শেখ।
ওই বৈঠকেই ন্যাশনাল অ্যাকশন প্ল্যান বা এনএপি-তে অনুমোদন দেয়া হয়। সমস্যা মোকাবিলায় ৭.৩ বিলিয়ন পাকিস্তানি টাকা খরচ হবে। খাদ্য নিরাপত্তামন্ত্রী খুসরো ভক্তিয়ারের নেতৃত্বে উচ্চপর্যায়ের কমিটি তৈরি করেছেন ইমরান। ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিকে সমস্যার গুরুত্বের বিষয়ে অবগত করে প্রাদেশিক প্রশাসন এপর্যন্ত কী কী পদক্ষেপ করেছেন সেই তথ্য দিয়েছেন খুসরো। বৈঠকে স্থির হয় জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা দল, প্রাদেশিক বিপর্যয় মোকাবিলা দল এবং প্রাদেশিক দপ্তরগুলিকেও পঙ্গপাল নিয়ন্ত্রণের কাজে সামিল করা হবে। এর আগে ১৯৯৩ সালেও এভাবেই পঙ্গপাল বাহিনী মোকাবিলায় এনএপি নেয়া হয়েছিল। চারদিনে সেই সমস্যা মিটেছিল।
তথ্যসূত্র: আজকাল

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ