পণ্যের মত সেবা আমদানি-রপ্তানিও আইনের আওতায় আসছে

আপডেট: এপ্রিল ১, ২০২৪, ৮:৪৪ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক:পণ্য আমদানি-রপ্তানির মত সেবাকেও বৈদেশিক বাণিজ্যের নীতিমালার আওতায় এনে নতুন আইন করার প্রস্তাবে সায় দিয়েছে সরকার।
সোমবার প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে ‘আমদানি ও রপ্তানি আইন-২০২৪’ এর খসড়ায় নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব মাহবুব হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, এতদিন আমদানি ও রপ্তানি নিয়ন্ত্রণ বা নিষিদ্ধ করার কাজটি করা হত ১৯৫০ সালের ‘দ্য ইমপোর্টস অ্যান্ড এক্সপোর্টস কনট্রোল অ্যাক্ট’ এর মাধ্যমে।

“পুরোনো আইনগুলো পর্যায়ক্রমে যুগোপযোগী করার নির্দেশনা আছে। সেই নির্দেশনার আলোকে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এই আইন নিয়ে এসেছে। আগের আইনটাতে ছোটখাটো সংযুক্তি আছে।

“এ আইনে আগে সেবা কার্যক্রম অন্তর্ভুক্ত ছিলো না। শুধু পণ্য ছিলো। এখন সেবাকে অন্তর্ভুক্ত করা হলো। আগের আইনের সবকিছু এখানে আনা হয়েছে। (আইনটি) বাংলায় অনুবাদ করা হয়েছে আর সেবাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।”

উদাহরণ দিয়ে সচিব বলেন, “আগে ছিল কেবল পণ্য আমদানি রপ্তানির প্রসঙ্গ। এবার বাণিজ্যকভাবে সেবা আমদানি ও রপ্তানির বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। সেবা বলতে বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার ‘জেনারেল এগ্রিমেন্ট অন ট্রেড ইন সার্ভিস-এগ্রিমেন্টে’ সেবার সজ্ঞায় বর্ণিত শর্ত-গুলোকে বিবেচনা করা হয়।”

নতুন আইন পাস হলে, পণ্যের মত সেবার আমদানি ও রপ্তানি নিয়ন্ত্রণ বা নিষিদ্ধ করতে পারবে সরকার। এ সংক্রান্ত আদেশ ও বিধিনিষেধ প্রণয়ন করতে পারবে; নীতি প্রণয়ন করতে পারবে।

এ আইনে মাত্র ১৬ টি ধারা থাকছে জানিয়ে সচিব বলেন, বিধিতে আরও বিস্তারিত থাকবে।
তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Exit mobile version