পত্নীতলায় ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে ফসল ও ঘর-বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত

আপডেট: এপ্রিল ৩০, ২০২২, ১১:২০ অপরাহ্ণ

পত্নীতলা (নওগাঁ) প্রতিনিধি:


নওগাঁর পত্নীতলায় কালবৈশাখী ঝড়ে বোরো ধানসহ বিভিন্ন ফসল, গাছপালা ও ঘর-বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। গত শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) রাত্রি পৌণে ৯টা হতে প্রায় ঘণ্টাকাল ব্যাপী প্রথমে দমকা বাতাস ও বৃষ্টির মধ্যে শিলাবৃষ্টিও হয়।

সরেজমিন বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, উপজেলা সদর নজিপুর পৌর এলাকাসহ ১১টি ইউনিয়ের ফলজ গাছগুলোর আম ঝরে যায়। বোরো ধান প্রবল ঝড়ে মাটিতে নুয়ে পড়ে। বিভিন্ন গাছ উপড়ে যায় ও গাছের ডাল ভেঙে যায়। এছাড়াও অনেক বসতবাড়ির খড় ও টিনের চালা ভেঙে মচকে-দুমড়ে ফুটা এবং উড়ে যায়। এতে ঘর-বাড়ির ক্ষতির কোন সুনির্দিষ্ট পরিসংখ্যান পাওয়া যায়নি।

ঝড় ও বৃষ্টি থেমে যাওয়ার পরপরই নওগাঁ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২, পত্নীতলা ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্স ও থানা পুলিশ সদস্যরা সড়কের উপড়ে যাওয়া গাছ ও ঝড়ে ভেঙে পড়া গাছের ডাল অপসারণ কাজে নিয়োজিত হন। এতে ওই রাতেই উপজেলা সদরের নজিপুর পৌর শহরে বৈদুতিক ব্যবস্থা সচল হয় রাত্রি সাড়ে ৩টার দিকে। এছাড়া ইউনিয়ন পর্যায়ের ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার বৈদুতিক লাইন সচল করতে বিভিন্ন এলাকাভেদে সময়ের পার্থক্য ঘটে।

পত্নীতলা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ প্রকাশ চন্দ্র সরকার জানান, ‘কালবৈশাখী ঝড়ে মাঠের ফসলের ২ হাজার ৯শ ৬০ হেক্টর ধান হেলে পড়ে এবং ১০% আম ঝরে পড়েছে। তিনি আরো বলেন, কৃষি ফসলের ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা করে সরকারি বরাদ্দ পাওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট আবেদন করা হবে।’ উল্লেখ্য, এ রিপোর্টটি লেখা পর্যন্ত কোথাও কোন জীবজন্তু ও মানুষের প্রাণহানীর ঘটনার খবর পাওয়া যায় নি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ