পদ্মায় রাতে মাছ ধরার ওপর কড়াকড়ি বিজিবির, বেকায়দায় জেলে পরিবার

আপডেট: এপ্রিল ৮, ২০২০, ১০:৩৭ অপরাহ্ণ

চারঘাট প্রতিনিধি


সীমান্তরক্ষি বাহিনী বর্ডারগার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) মীরগঞ্জসহ চারঘাট বিওপি, ইউসুফপুর ক্যাম্পের সদস্যদের কড়াকড়িতে পদ্মা নদীতে রাতের বেলায় মাছ ধরতে পারছে না জেলেরা। গত ১০ দিন ধরে কোনো জেলে রাতের বেলায় পদ্মায় নামতে পারেনি। ফলে বেকায়দায় পড়েছেন এসব জেলে পরিবার। তবে বিজিবির দাবি, দিনের বেলায় মাছ ধরতে অনুমতি দেয়া হলেও সীমান্ত সুরক্ষায় রাতের বেলায় পদ্মায় না নামার জন্য জেলেদের অনুরোধ করা হয়েছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, মাদক নির্মূলসহ সীমান্ত সুরক্ষায় কঠোর অবস্থানে রয়েছে সীমান্তরক্ষি বাহিনী বিজিবি। বিজিবির এমন কঠোর অবস্থানের ফলে রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার রাওথা, পিরোজপুর, মীরগঞ্জ এলাকার মাছের ওপর নির্ভরশীল জেলেরা পড়েছেন বেকায়দায়। বিজিবি দিনের বেলায় পদ্মা নদীতে মাছ শিকারের অনুমতি দিলেও রাতের বেলায় নামতে দিচ্ছে না নদীতে। এতে করে মাছ শিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন জেলেরা। জেলেদের দাবি দিনের বেলায় তেমন মাছ ধরা যায় না। তবে রাতের বেলায় মাছ শিকার করা যায় বেশি। কিন্তু মীরগঞ্জ ক্যাম্পের হাবিলদার আলাউদ্দিন ও নায়েব সুবেদার নুর আমিনের কঠোর নজরদারির কারণে গত ১০ দিন ধরে রাতের বেলায় নদীতে নামা যাচ্ছে না।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক জেলে জানান, হাবিলদার আলাউদ্দিনের কারণে সীমান্তবর্তী মাদক সেবনকারী ও পাচারকারীরা জড়োসড়ো হয়ে পড়েছেন। হাবিলদার আলাউদ্দিনের নাম শুনলেই মাদক সেবনকারী ও পাচারকারীরা যেমন থাকেন আতঙ্কে, ঠিক তেমননি জেলেরাও রয়েছেন আতঙ্কে। অনুমতি ছাড়া নদীতে নামলেই হয়ত মারধরের শিকার হতে হবে তাই বিনা অনুমতিতে কোনো জেলেই নদীতে মাছ ধরতে যায়নি।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ইউপি সদস্য জানান, মাদক সেবনকারী, পাচারকারীসহ অপরাধ জগতের কাছে হাবিলদার আলাউদ্দিন মানেই এক আতঙ্কের নাম। নাম শুনলেই ভয়ে থাকেন অপরাধ জগতের মানুষগুলো। গত কয়েক দিনের ব্যবধানে হাবিলদার আলাউদ্দিন ইয়াবা, ফেন্সিডিলসহ হেরোইন উদ্ধারে যে সফলতা দেখিয়েছেন তাতে মীরগঞ্জ এলাকার মানুষ হাবিলদার আলাউদ্দিনের কাছে কৃতজ্ঞ।
সার্বিক বিষয়ে মীরগঞ্জ ক্যাম্পের ইনচার্জ সুবেদার নুর আমিন বলেন, জেলেদের গত ১০ দিন ধরে রাতে মাছ ধরা থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে। কারণ জেলেরা রাতের বেলায় ভারত সীমান্তের অভ্যান্তরীণ এলাকায় গিয়ে মাছ ধরে। এতে সীমান্তে একটা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হওয়ার আশঙ্কা থাকে। তাই সীমান্ত সুরক্ষায় রাতের বেলায় মাছ না ধরতে জেলেদের আহ্বান জানানো হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ