পদ্মা সেতুর নাট-বল্টু খোলা বায়েজিদের বাড়িতে হামলা-ভাঙচুর

আপডেট: জুন ২৮, ২০২২, ১২:২৫ অপরাহ্ণ

বায়েজিদের বাড়িতে হামলা করছে একদল যুবক

সোনার দেশ ডেস্ক :


পদ্মা সেতুর রেলিংয়ের নাট-বল্টু খোলার ঘটনায় গ্রেফতার বায়েজিদ তালহা মৃধার গ্রামের বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর হয়েছে।
সোমবার (২৭ জুন) বিকেলে পটুয়াখালী সদর উপজেলার লাউকাঠি ইউনিয়ন তেলিখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। তবে এতে হতাহত হয়নি কেউ।

স্থানীয়রা জানান, পদ্মা সেতুর নাট খোলার পর সবাই জানতে পারে বায়েজিদের গ্রামের বাড়ি পটুয়াখালীতে। এরপর অনেকেই তার বাড়ির খোঁজ শুরু করে। একপর্যায়ে বিকেল ৫টার দিকে একদল যুবক রড-লাঠি নিয়ে বায়েজিদের বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর চালায়।

এসময় বায়েজিদের ভাই মো. সোহাগ মৃধার স্ত্রী হাদিসা খাতুন ও তার মেয়ে ফাতিমাতুজ্জোহরা প্রাণ বাঁচাতে পাশের ঘরে আশ্রয় নেন। একপর্যায়ে হামলাকারীরা বায়েজিদের ভাইয়ের মোটরসাইকেলও ভাঙচুর করেন।

এদিকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে হামলার ঘটনার বেশ কিছু ছবি প্রকাশ পায়। এতে দেখা যায় পটুয়াখালী সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জাহিদসহ ছাত্রলীগের আরও কয়েকজনকে।

এ বিষয়ে জাহিদুল ইসলাম জাহিদ বলেন, বাংলাদেশের সব মানুষের স্বপ্নের সেতু পদ্মা সেতু। একজন ছাত্রলীগের সদস্য হিসেবে কোনো অবস্থাতেই বায়েজিদের এমন কর্মকাণ্ড মেনে নেওয়া যায় না। সে কারণেই আজ ওদের বাড়িতে গিয়েছিলাম। কিন্তু পরিবারের কাউকে পাইনি।

এদিকে হামলায় অংশ নিতে দেখা যায় আরাফাত ইসলাম সাগর নামে আরেক যুবককে। তিনি পটুয়াখালী জেলা ছাত্রলীগের ভেঙে দেওয়া কমিটির সদস্য (কার্যনির্বাহী) ছিলেন।

আরাফাত ইসলাম বলেন, আমরা সবাই পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে গিয়েছিলাম। এই সেতু আমাদের একটা আবেগের জায়গা। ১৬ কোটি বাঙালির আবেগের জায়গায় হাত দিয়েছেন বায়েজিদ। আমরা খোঁজ নিয়ে দেখেছি বায়েজিদের পরিবার বিএনপি-জামায়াতের।

সে কারণে পরিকল্পিতভাবে তিনি এ কাজ করেছেন। আজ আমরা তাদের বাড়িতে গিয়েছিলাম। আমাদের সঙ্গে স্থানীয়রাও ছিলেন। ওখানে যা হয়েছে তা আমাদের বিবেকের তাড়নায় করেছি।

বায়েজিদের ভাবি হাদিসা আক্তার বলেন, বিকেলের দিকে মেয়েকে নিয়ে ঘরে ছিলাম। এমন সময় হঠাৎ রামদা-কুড়াল নিয়ে অনেক ছেলেরা প্রবেশ করলে আমরা ভয়ে পাশের ঘরে আশ্রয় নেই। আমার ঘরের বেড়া কোপাইছে, ঘরের মালামাল ভাঙচুর করছে।
পটুয়াখালী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান বলেন, এ বাড়িতে মূলত বায়েজিদ থাকেন না।

এখানে থাকেন তার ভাই-ভাবি। তবে বিকেলে কে বা কারা এই বাড়িতে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করেছে। এ বিষয়ে এখনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে বায়েজিদের রাজনৈতিক পরিচয় নিয়ে আওয়ামী লীগ-বিএনপি কেউই দায় নিচ্ছে না। তবে এরইমধ্যে বায়েজিদের সঙ্গে পটুয়াখালী জেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি গাজী আশফাকুর রহমান বিপ্লব এবং কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর ছবি ভাইরাল হয়েছে।

শনিবার (২৫ জুন) বহুল কাঙ্ক্ষিত পদ্মা সেতু উদ্বোধন হয়। এর পরের দিন রোববার (২৬ জুন) ভোর থেকেই সেতু দিয়ে শুরু হয় যান চলাচল। এদিন পদ্মা সেতু গিয়ে রেলিংয়ের নাট-বল্টু খুলে টিকটক ভিডিও আপলোড করেন বায়েজিদ। এরপর ভিডিওটি সিআইডির নজরে আসে। সবশেষ রাজধানীর শান্তিনগর থেকে তাকে আটক করা হয়।
তথ্যসূত্র: জাগোনিউজ