পবায় বসতভিটা থেকে উচ্ছেদ করতে মিথ্যা মামলার অভিযোগ

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২, ২০২২, ১০:৩৮ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:


পবায় বসতভিটা থেকে উচ্ছেদ করতে মিথ্যা ও হয়রানীমূলক মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগ উঠেছে। আপন চাচাতো বোনের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ তুলেছেন রাজশাহীর পবা উপজেলার রাধানগর এলাকার মিন্টু নামের এক ব্যক্তি। বুধবার (২ ফেব্রুয়ারি) রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়ন কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে মিন্টু তার চাচাতো বোন রেহেনা বেগমের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত অভিযোগ পাঠ করেন ভুক্তভোগী মো. মিন্টুর স্ত্রী রমেসা বেগম।
এসময় রমেসা বেগম বলেন, দীর্ঘদিন ধরে মিন্টুর সাথে তার চাচাতো বোন রেহেনা বেগমের পারিবারিক ও জমি-জমা নিয়ে দ্বন্দ্ব চলে আসছে। প্রতিবারই তারা হয়রানি করতে মিথ্যা মামলা দিয়ে আসছে।

গত বছরের এপ্রিলে রাজশাহীর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১৪৫ ধারায় ফৌজদারী কার্যবিধি আইনে মিথ্যা মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে আদালত আমাদের পক্ষে রায় প্রদান করেন। এরপর গত ২ নভেম্বর কর্ণহার থানায় আরেকটি মামলা দায়ের করেন। যেটি আদালতে বিচারাধীন। এরপর ১৪ ডিসেম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালে আরও একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেন রেহেনা বেগম। তাদের এসব মিথ্যা ও হয়রানীমূলক মামলার ন্যায় বিচার চান রমেসা বেগম।

এবিষয়ে মামলার বাদী রেহেনা বেগম বলেন, এসব অভিযোগ মিথ্যা। মিন্টুই তো আমাকে নিয়ে বিভিন্ন অশ্লীল ও অশ্রাব্য ভাষায় গালি-গালাজ করে। রাতে তুলে নিয়ে যাওয়ার ও নির্যাতন করার হুমকি দেয়। তাই নিরাপত্তার জন্য আদালতে মামলা করেছি।
তিনি আরও বলেন, মিন্টুর সাথে জমি-জমা নিয়ে কোনো ঝামেলা নেই। আমি কেন তাকে বসতভিটা থেকে উচ্ছেদ করতে যাবো?

সংবাদ সম্মেলনে মিন্টুর চাচা আলতাব আলী, চাচাতো ভাই তোতা ও মুনসুর আলী প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ