পরকীয়া সন্দেহে স্ত্রীর যোনাঙ্গে পেরেক ঢুকিয়ে তালা দিলেন স্বামী!

আপডেট: মে ১৯, ২০২৪, ১২:৪১ অপরাহ্ণ

প্রতীকী ছবি।

সোনার দেশ ডেস্ক :


স্ত্রী জড়িয়েছেন অন্য কোনো সম্পর্কে। এই ‘সন্দেহে’র বশে তাঁর প্রতি ভয়ংকর আচরণের অভিযোগ উঠল মহারাষ্ট্রের বাসিন্দা এক নেপালি যুবকের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত যুবককে ইতোমধ্যেই গ্রেফতার করা হয়েছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন নির্যাতিতা।

৩০ বছরের ওই নেপালি যুবকের স্ত্রীও নেপালি। তাঁর বয়স ২৮ বছর। মহারাষ্ট্রের পিম্পরি-চিনচাওয়াড় এলাকায় থাকতেন তাঁরা। কয়েকদিন আগে অভিযুক্ত যুবক স্ত্রীর উপরে চড়াও হন। তাঁর সন্দেহ, অন্য কোনো পুরুষের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়েছে স্ত্রী।

অভিযোগ, ঘটনার দিন স্ত্রীকে প্রবল মারধর করেন তিনি। তার পর তাঁর হাত-পা বেঁধে ফেলেন চাদর দিয়ে। এর পরই ধারালো ব্লেড দিয়ে কেটে দেন স্ত্রীর যোনির দুটি অংশ। সেখানে দুটি পেরেক ঢুকিয়ে একটা তালা ঝুলিয়ে দেন।

এমন পাশবিক আচরণের পর নির্যাতিতা প্রবল চিৎকার করে কাঁদতে থাকেন। মেঝে ভেসে যেতে থাকে রক্তে। আশপাশের লোকেরা তাঁকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যায়। এখনও তিনি সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

পরে পুলিশে অভিযোগ দায়ের অভিযুক্তের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে পুলিশ। তদন্তকারীরা পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন। ঘটনার তীব্র নিন্দা করে কড়া পদক্ষেপের আশ্বাস দিয়েছেন পুলিশ কর্মকর্তারা।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন অনলাইন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Exit mobile version