পাঁচ উপজেলার ইউপি চেয়ারম্যান ও জেলা পরিষদ সদস্যদের সাথে মতবিনিময়

আপডেট: সেপ্টেম্বর ২০, ২০২২, ১১:১৫ অপরাহ্ণ

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:


রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদের সদস্য ও নগরের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল জেলার বাগমারা, পুঠিয়া, পবা, বাঘা ও চারঘাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা পরিষদের সদস্যদের সাথে মতবিনিময় করেন। মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অনিলকুমার সরকার। সঞ্চালনা করেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জাকিরুল ইসলাম সান্টু।

সভায় বক্তব্য দেন, নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, বাগমারা উপজেলার চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম সারোয়ার আবুল, বেলপুকুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বদিউজ্জামান, হরিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বজলে বেজবি আল হাসান মুঞ্জিল, পাকুরিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মেরাজুল ইসলাম মেরাজ।

বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করে বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে মনোনয়ন দিয়ে আপনাদের সেবা করার সুযোগ করে দিয়েছেন। আমি বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা, জননেতা এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন ও আপনাদের সম্মান রক্ষা রেখে কাজ করবো, এই প্রতিশ্রুতি আমি আপনাদেরকে দিচ্ছি। আমি আরো প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি আমার দরজা সকলের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। আমি আপনাদের একজন হয়ে কাজ করতে চাই।

তিনি আরো বলেন, জেলা পরিষদে যে বরাদ্দ আসবে তা আপনাদের মাঝে সুষম বন্টন করাই হবে আমার কাজ। আমি জেলা পরিষদের সার্বিক উন্নয়নে আপনাদের সাথে নিয়ে আমার সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাবো। জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আমি বিজয়ী হলে, এই বিজয় হবে আপনাদের, এই বিজয় হবে জননেত্রী শেখ হাসিনা’র, এই বিজয় হবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের।

উপস্থিত ছিলেন, নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রেজাউল ইসলাম বাবুল, যুগ্ম সম্পাদক মোস্তাক হোসেন, আসাদুজ্জামান আজাদ, আহ্সানুল হক পিন্টু, সাংগঠনিক সম্পাদক মীর ইসতিয়াক আহম্মেদ লিমন, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক রবিউল আলম রবি, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মকিদুজ্জামান জুরাত, উপ-দপ্তর সম্পাদক পংকজ দে, সদস্য মুশফিকুর রহমান হাসনাত, আশরাফ উদ্দিন খান, রাজশাহী জেলা পরিষদের সদস্য আবু জাফর প্রামানিক, জেলা যুবলীগের সভাপতি আবু সালেহ, সিলমাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাজজাদ হোসেন মুকুল, জিউপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হোসনে আরা, বড়গাছী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহাদৎ হোসাইন, পুঠিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আশরাফ খান, আউচপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জি এম সাফিকুল ইসলাম, সোনাডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আজাহারুল হক, হামিরকুৎসা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, বাসুপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান লুৎফর রহমান, দর্শনপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহাদৎ হোসেন, বড়বিহানালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহমুদুর রহমান, মারিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রেজাউল হক, গণিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মন্ডল কঞ্জু, যোগীপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম এফ মাজেদুল ইসলাম, গোয়ালকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলমগীর সরকার, দ্বীপপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বিকাশ চন্দ্র ভৌমিক, দামকুড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম, গোবিন্দপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান, শলুয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, শুভডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন, শ্রীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মকবুল হোসেন মৃধা, গড়গড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম, সরদাহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাসানুজ্জামান, কাচারী কোরালীপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মোজাম্মেল হক, বড়বিহানালী ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য সাইদুল রহমান, ভায়ালক্ষীপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ময়না প্রমুখ।