পাঁচ দফা দাবিতে ওয়ার্কার্স পার্টির সমাবেশ

আপডেট: জুন ২৫, ২০২৪, ১০:০৩ অপরাহ্ণ

পাঁচ দফা দাবিতে ওয়ার্কার্স পার্টির সমাবেশ
নিজস্ব প্রতিবেদক:


পাঁচ দফা দাবিতে মিছিল ও সমাবেশ করেছে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পাটি। কেন্দ্রীয় কমিটির ঘোষিত এই কর্মসূচি মঙ্গলবার (২৫ জুন( বিকেলে সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশের ওয়ার্কাস পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা।

ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, বাংলাদেশে এক আমলে খুব সুনাম অর্জন করেছিল। সেটি বিএনপির আমলে। তিন তিনবার আমরা দুর্নীতিতে প্রথম হয়েছিলাম। বাংলাদেশের টাকা এবং সম্পদ পাচার করে কানাডাতে বেগমপাড়া, মালয়েশিয়াতে বাংলাদেশীপাড়া করা হচ্ছে। এগুলো বাংলাদেশী টাকায়। তাদের খবরকি অর্থমন্ত্রী রাখেন?

তিনি আরও বলেন, আমি বলতে চাই অনেকের সেকেন্ড হোম আছে। কেউ সেকেন্ড হোম বানিয়েছেন সিঙ্গাপুরে, দুবাইয়ে, মালয়েশিয়াতে। আমরা মুক্তিযুদ্ধ করলাম, এই দেশে থাকার জন্য। বুকের রক্ত দিলাম। কিন্তু এই দেশটা স্বাধীন হওয়ার পরে কিছু লোক সুযোগ পেয়ে তারা এই দেশে থেকে অন্য দেশে ঘরবাড়ি বানাচ্ছে। তার প্রমান ও সেই তথ্য আমাদের সবার কাছে আছে।

সমাবেশে পাঁচ দফা দাবিগুলো হলো- দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে বাজার সিন্ডিকেট ভেঙে দাও। টিসিবির ডিলারশীপ ও ওএমএস বৃদ্ধির পাশাপাশি পূর্ণাঙ্গ রেশনিং ব্যবস্থা চালু কর। রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা ব্যবহার করে দুর্নীতির মাধ্যমে সম্পদ অর্জনকারীদের চিহ্নিত করে। বিচার করতে “বিশেষ কমিশন” গঠন কর। ব্যাংকিং খাতে নৈরাজ্য লুট বন্ধ কর। ব্যাংক কমিশন গঠন কর।

অর্থ পাচার রোধ কর। পাচারকৃত অর্থ ফিরিয়ে আন। অর্থ পাচারকারীদের গ্রেপ্তার ও বিচার কর। খেলাপি ঋণ আদায়ে বিশেষ ব্যবস্থা নাও। ইচ্ছাকৃত খেলাপিদের অর্থ আদায় ও বিচার করতে “বিশেষ ট্রাইব্যুনাল” গঠন কর। সমাবেশ শেষে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হবে।

রাজশাহী মহানগর সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য অ্যাড. আবু সাঈদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক দেবাশিষ প্রামানিক দেবুর সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য দেন, সাম্যবাদী দলের মহানগর সম্পাদক এসএম ফারুক, জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রফিকুল ইসলাম পিয়ারুল, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আশরাফুল হক তোতা, মহানগর সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ