বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী

পাকশীতে আন্দোলনে মুখে উচ্ছেদের সময় বাড়ল ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত

আপডেট: December 12, 2019, 1:12 am

ঈশ্বরদী প্রতিনিধি


আন্দোলনের মুখে অবশেষে ঈশ্বরদীর পাকশীতে রেলওয়ে বাসা ও জমিতে বৈধ-অবৈধভাবে বসবাসকারীদের উচ্ছেদের সময় বৃদ্ধি করা হয়েছে। গতকাল বুধবার উচ্ছেদের মুখে পড়া কয়েক হাজার নারী-পুরুষ ও শিক্ষার্থীরা উচ্ছেদের সময় বৃদ্ধি ও পুনর্বাসনের দাবিতে বিশাল মানববন্ধন-সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল করার পর রেল কর্তৃপক্ষ সমাবেশস্থলে এসে আগামী ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত সময় বৃদ্ধি করার ঘোষণা দিলে পরিস্থিতি শান্ত হয়। এর আগে দেওয়া নোটিশ অনুযায়ী এসব বাসিন্দাদের উচ্ছেদ করার শেষ সময় ছিল গতকাল ১১ ডিসেম্বর।
গতকাল বুধবার সকালে পাকশী বাজার, স্থানীয় শতাধিক দোকানপাট, স্কুল কলেজ বন্ধ করে সম্মিলিতভাবে কয়েক হাজার নারী-পুরুষ, শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী বিক্ষোভ মিছিল, ব্যানার, ফেস্টুন নিয়ে পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ে অফিস চত্বরে এবং রেলওয়ে ফুটচবল মাঠে সমবেত হন। পাকশী বাজার বণিক সমিতির সভাপতি গোলাম কিবরিয়ার সভাপতিত্বে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য দেন মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী বেগম হাওয়া বেগম, শিক্ষার্থী রুপা খাতুন, মোঃ স্বপন, হাওয়া বেগম, রেনু বেগম প্রমুখ। প্রায় দু’ঘন্টাব্যাপি সমাবেশ চলার এক পর্যায়ে পাকশী রেলওয়ে ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তা নুরুজ্জামান সমাবেশস্থলে এসে মানবিক কারণে উচ্ছেদের সময় আগামী ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত বৃদ্ধি করার ঘোষণা দিলে আন্দোলনকারীরা তাদের কর্মসূচি আপাততঃ স্থগিত করেন।
ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তা নুরুজ্জামান বলেন, প্রয়োজনে আরো সময় বৃদ্ধি করা হবে তবে রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের স্বার্থে এই জায়গা সবাইকে খালি করে দিতে হবে। তিনি আন্দোলনকারীদের পরামর্শ দেন যারা ভূমিহীন তাদের তালিকা জেলা প্রশাসকের কাছে জমা দেয়ার জন্য।
এর আগে পুনর্বাসনের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে আকুল আবেদন জানিয়ে স্মারকলিপিতে আবেদন জানিয়ে বলেন, রোহিঙ্গারা আশ্রয় পেলে দেশের মানুষ হিসেবে আমাদেরকেও পুনর্বাসন করতে হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ