পাকিস্তানের চোখে ‘৪২০’

আপডেট: ডিসেম্বর ১৮, ২০১৬, ১২:০৬ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



পাহাড় ডিঙাতে হবে। পাকিস্তান কি পারবে? অতীত সাক্ষী মানলে ব্রিসবেন টেস্টে হার এড়ানো সম্ভব নয় মিসবাহ-উল হকের দলের। জিততে হলে ৪৯০ রান করতে হবে। যার অর্থ জিততে হবে রেকর্ড গড়ে। আর ম্যাচ বাঁচাতে হলেও গ্যাবায় প্রথম দল হিসেবে চতুর্থ ইনিংসে সবচেয়ে বেশি ওভার খেলার রেকর্ড গড়তে হবে তাদের। দ্বিতীয় ইনিংসে ২ উইকেটে ৭০ তুলে তৃতীয় দিন শেষ করেছে পাকিস্তান। জয়ের জন্য গুণে গুণে ৪২০ রান দরকার তাদের। পাকিস্তানের জন্য অপেক্ষা করছে ১৮০ ওভারও! কোনটি বেশি কঠিন- আরও ৪২০ রান তোলা, নাকি দুটি দিন পার করে দেওয়া?
পাকিস্তান যে তবু ম্যাচটা চতুর্থ দিনে নিয়ে পারল, সেটাও তো ‘বড় কৃতিত্বে’র। কিছুটা অস্ট্রেলিয়ারও। ৭ রানে ৮ উইকেট হারানো পাকিস্তানের প্রথম ইনিংস এক শর নিচে থেমে যাওয়ার শঙ্কা জেগেছিল। সরফরাজ খানের বীরত্বে তা হয়নি। অপরাজিত ৫৯ রান করে দলকে এনে দেন ১৪২ রান। ফলোঅনে পড়ে পাকিস্তান। তবে ২৮৭ রানের লিড থাকার পরও ফলোঅন না করিয়ে নিজেরাই ব্যাট করতে নামে অস্ট্রেলিয়া।
দ্বিতীয় ইনিংসে ওয়ানডের গতিতে রান তোলে অস্ট্রেলিয়া। ৩৯ ওভারে ৫ উইকেটে ২০২ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করে। ফিফটি করেন উসমান খাজা, জন্মভূমি পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম খেলছেন যিনি। আর প্রথম ইনিংসের সেঞ্চুরিয়ান স্মিথ পেয়ে যান ফিফটিও। এই নিয়ে সপ্তমবারের মতো একই টেস্টে সেঞ্চুরি ও ফিফটি করার কীর্তি গড়েন অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক।
৪০০-এর বেশি রান তাড়া করে টেস্ট জেতার রেকর্ড খুব বেশি নেই, মাত্র চারটি। সর্বোচ্চ রান তাড়া করে টেস্ট জয়ের রেকর্ডটি ওয়েস্ট ইন্ডিজের। ২০০৩ সালে সেন্ট জোন্সে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে জিততে চতুর্থ ইনিংসে ৭ উইকেটে ৪১৮ রান করেছিল তারা। আর পাকিস্তানকে করতে হবে পাঁচ শর কাছাকাছি রান।
আপাতদৃষ্টিতে অসম্ভব এই কাজটি পাকিস্তানকে করতে হবে আবার ডে-নাইট টেস্টে। আগের দিন আলোর নিচেই ধসে পড়েছিল তাদের প্রথম ইনিংস। তবে প্রথম ইনিংসের মতো ধস আর এবার নামেনি। দিনের খেলা শেষ হওয়ার আগে ২ উইকেট হারিয়ে ৭০ রান তুলেছে তারা। ১৯ বলে কোনো রান না করে উইকেটে আছেন ইউনুস খান। আজহার আলীও সাবধানে পা ফেলছেন। ৪১ রান তুলতে বল খেলেছেন ১০৪টি।
ইউনুস-আজহাররা সাধ্য মতো চেষ্টা করছেন। তবে তাদের কাজটি কত কঠিন তা পরিষ্কার হবে তা গ্যাবার একটি পরিসংখ্যানে তাকালে স্পষ্ট হবে। গ্যাবাতে চতুর্থ ইনিংসে এর আগে ১৫০ ওভারের বেশি ব্যাট করতে পারেনি কোনো দল। আর অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে চতুর্থ ইনিংসে পাকিস্তানের সর্বোচ্চ ১৩৭.৫ ওভার খেলার নজির আছে। সেটাও সেই ১৯৯০ সালের জানুয়ারিতে। মেলবোর্নের সেই টেস্টে চতুর্থ ইনিংসে ৩৩৬ রান করেও ৯২ রানে হেরেছিল পাকিস্তান। কালকেও শেষ হয়ে যেতে পারে টেস্ট।