পাকিস্তান-ভারত সিরিজ নিয়ে মিসবাহর দুঃখ

আপডেট: এপ্রিল ৩, ২০১৭, ১২:২৯ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



২০১০ সালে লন্ডনগেট কেলেঙ্কারির পর পাকিস্তান দলের দায়িত্ব নেন মিসবাহ-উল হক। এরপর কঠিন সময়ে দলটিকে নেতৃত্ব দিয়ে একটা ভালো অবস্থায় নিয়ে এসেছেন তিনি। এমনকি টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে কিছুদিনের জন্য দেশকে নিয়ে এসেছিলেন শীর্ষে। পাকিস্তানের সবচেয়ে সফল টেস্ট অধিনায়ক তিনি। টানা সাত বছর একটি দেশকে নেতৃত্ব দেয়ার পরও মিসবাহর আক্ষেপ, তিনি এখন পর্যন্ত কোনো টেস্ট সিরিজে ভারতের বিপক্ষে দেশকে নেতৃত্ব দিতে পারেননি। কোনো টেস্ট ম্যাচে ভারতের কোনো অধিনায়কের সঙ্গে টস করতে করতে নামতে পারেননি।
রোববার এক সাক্ষাৎকারে পাকিস্তান-ভারত দ্বিপাক্ষিক সিরিজের বিষয়ে কথা বলেন মিসবাহ। এ সময় তিনি দুই দেশের মধ্যে কোনো সিরিজ অনুষ্ঠিত না হওয়া খুব দুঃখ প্রকাশ করেন। তিনি জানান, খেলাধুলার কোনো পর্যায়েই প্রতিবন্ধকতা আরোপ করা ঠিক নয়।
পাকিস্তানের টেস্ট অধিনায়ক বলেন, ‘ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে সিরিজ আয়োজনের পেছনে সবচেয়ে বড় প্রতিবন্ধকতা হচ্ছে রাজনীতি এবং দুই দেশের মধ্যে রাজনৈতিক পরিস্থিতি। তবে আমি মনে করি না, এসব বিষয় দিয়ে ক্রিকেটার এবং সমর্থকদের ক্রিকেট বিনোদনে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করা উচিত। কোনোভাবেই এটা সঠিক নয়।’
৪২ বছর বয়সি মিসবাহ-উল হক মনে করেন, পাকিস্তানের মত ভারতও চায় দুই দেশের মধ্যে সিরিজ হোক। তবে এখানে অন্য ইস্যু জড়িত। আমি নিশ্চিত, দুই দেশের মধ্যে রাজনৈতিক পরিস্থিতি যদি কখনও উন্নত হয়, তাহলে তখনই ক্রিকেটের দরজাও হয়তো খুলবে।’ মিসবাহ দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, দুই দেশের তরুণ প্রজন্মের ক্রিেেকাররা কখনই ভারত-পাকিস্তান ক্রিকেট সিরিজের উত্তাপের সঙ্গে পরিচিত হতে পারছে না। যদি হতে পারত, তাহলে তাদের ক্যারিয়ারই হয়তো ভিন্ন হতে পারত।