পানির অভাবেই রক্তপানের অভ্যেস গড়ে উঠেছে মশাদের, বলছে মার্কিন গবেষণা

আপডেট: জানুয়ারি ৭, ২০২১, ৯:০০ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক:


নিরক্ষীয় অঞ্চলের মানুষের একটা বড় দৈনন্দিন সমস্যা হল মশা। মশার রক্ত খাওয়ার জ্বালায় জেরবার আমরা সবাই। কিন্তু একবারও ভেবে দেখেছেন, এই পতঙ্গ রক্ত খায় কেন? এতদিন এ নিয়ে কিছু জানা না গেলেও এবার সেই রহস্য উদ্ঘাটন করেছেন বিজ্ঞানীরা। তাঁরা এমনও জানিয়েছেন, এককালে নাকি রক্তের প্রতি কোনও আকর্ষণই ছিল না মশাদের।
নিউ জার্সির প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছেন যে, সমস্ত প্রজাতির মশারাই রক্তপান করে না। তারা অন্য কিছু পান করে, এমনকী খায়ও। নিউ সায়েন্টিস্ট নামক একটি জার্নালে এই গবেষণার রিপোর্ট পেশ করা হয়েছে সম্প্রতি। গবেষক দলের প্রতিনিধি নোয়া রোজ বলছেন, তাঁরা আফ্রিকা থেকে কিছু এডিস এজিপ্টাই মশার ডিম সংগ্রহ করে তা থেকে মশা বেরনো অবধি অপেক্ষা করেছিলেন। মশা বেরনোর পর সেগুলোকে মানুষ এবং অন্যান্য প্রাণীসহ বদ্ধ জায়গায় ছেড়ে দেন। তাঁরা খেয়াল করেন আলাদা আলাদা এডিস প্রজাতির মশার খাদ্য আলাদা। সবাই রক্তপান করে তা নয়।
গবেষকরা বলছেন, হাজার হাজার বছর আগে মশাদের রক্ত খাওয়ার অভ্যেস ছিল না। কোনও এলাকায় যদি অত্যধিক গরম পড়ে অথবা শুষ্ক হয়ে যায় বা পানির অভাব দেখা দেয়, তখন মশাদের আর্দ্রতার প্রয়োজন পড়ে। আর্দ্রতার চাহিদা থেকেই মশাদের রক্তপানের শুরু। হাজার হাজার বছর ধরে এইভাবেই রক্ত খাওয়ার অভ্যেস গড়ে উঠেছে মশককুলের। সোজা কথায় পানির অভাব মেটাতেই মানুষ এবং অন্যান্য জীবজন্তুর রিক্ত খায় তারা।
তথ্যসূত্র: আজকাল

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ