পানির তিন গুণ মূল্য বৃদ্ধি প্রতিবাদে নগর ওয়ার্কার্স পার্টির বিবৃতি

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২২, ৯:৫৯ অপরাহ্ণ

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:


রাজশাহী ওয়াসা কর্তৃক পানির মূল্য তিন গুণ বাড়ানোর সিদ্ধান্তের তীব্র সমালোচনা করেছে রাজশাহী মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টি। অর্থনৈতিক অবস্থার সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ না থাকায় এমন সিদ্ধান্ত রাজশাহীবাসীর জন্য জুলুম ও চরম ভোগান্তিকর বলে মন্তব্য করেছেন দলটির মহানগর কমিটির নেতারা।

বৃহস্পতিবার (০৩ ফেব্রুয়ারি) বিকালে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তারা এই মন্তব্য করেছেন। রাজশাহী মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি লিয়াকত আলী লিকু, জেলার সভাপতি রফিকুল ইসলাম পিয়ারুল, নগরের সাধারণ সম্পাদক দেবাশিষ প্রামানিক দেবু, জেলার সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল হক তোতা ও মহানগরের সম্পাদকম-লীর সদস্য অ্যাড. এন্তাজুল হক বাবু বিবৃতিতে সাক্ষর করেছেন।

বিবৃতিতে তারা বলেন, অন্যান্য শহরের তূলনায় রাজশাহীর মানুষের অর্থনৈতিক অবস্থা খুভ ভালো নয়। এখানকার মানুষের রোজগারের জন্য তেমন বড় কোনো উৎস নেই। নেই শিল্পকারখানাও। সম্প্রতি কিছু বছর ধরে করোনাকালে মানুষের ব্যবসা-বাণিজ্য তেমন নেই। এমন এক পরিস্থিতিতে ওয়াসার এমন সিদ্ধান্ত রাজশাহীর মানুষের জন্য মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা।

রাজশাহী ওয়াসার সমালোচনা করে ওয়ার্কার্স পার্টির নেতারা বলেন, ওয়াসার সেবার মান অনেক প্রশ্নবৃদ্ধ। তারা তাদের সেবার মান কখনোই বৃদ্ধি করেনি। তাদের পানি নগরের মানুষ তৃপ্তি নিয়ে ব্যবহার করতে পারে না।

এটি পানেরও অযোগ্য। প্রতিনিয়ত পানিতে ময়লা আসার অভিযোগ আসে। সম্প্রতি কলিফর্ম নামে একটি ব্যাকটেরিয়াও অতিমাত্রায় পাওয়া গেছে। এই পরিস্থিতিতে তাদের নিজস্ব সেবার মান বৃদ্ধি না করে উল্টো পানির মূল্য তিন গুণ বৃদ্ধি করা আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত।

বিবৃতিতে ক্ষোভ ও অসন্তোষ প্রকাশ করে তারা বলেন, ওয়াসাকে প্রথমে তাদের সেবার মান বাড়ানো প্রয়োজন। নগরবাসীর অভিযোগগুলো আমলে নিয়ে তা সমাধানের লক্ষ্যে পরিকল্পনারও প্রয়োজন।

অসন্তোষগুলো সন্তোষজনক অবস্থায় এনে গণশুনানির মধ্য দিয়ে পানির দাম বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা উচিত। এসব এড়িয়ে গিয়ে; কাউকে তোয়াক্কা না করে এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করা যাবে না। দূষিত পানির তিন গুণ মূল্য বৃদ্ধি ওয়ার্কার্স পার্টিসহ রাজশাহীবাসী কখনোই মেনে নেবে না।