পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর জীবনযাপন সহজতর করেছেন প্রধানমন্ত্রী: সিটি মেয়র

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২৪, ১১:৩০ অপরাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক:রাজশাহী বধির ফোরামের উদ্যোগে প্রথম জাহানারা জামান স্মৃতি মুখ ও বধির বার্ষিক বনভোজন ক্রীড়া প্রতিযোগিতা পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে জাহানারা জামান স্টেডিয়ামে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। অনুষ্ঠানে মুখ ও বধির প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী চ্যাম্পিয়ন ও রানার আপ দলকে ক্রেস্ট, ট্রফি ও সনদপত্র বিতরণ করেন রাসিক মেয়র। উল্লেখ্য, ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় রাজশাহী দলকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ঢাকা দল।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, প্রতিবন্ধী বা পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠী রাষ্ট্রীয় কোন আনুকূল্য পেত না, পূর্বে মুখ ও বধির ব্যক্তি, কোন স্বীকৃতিও পেত না, কোন ভাতা বা সম্মানী পেত না। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর থেকে তিনি সামাজিক নিরাপত্তা বলয় তৈরি করে সমাজের অবহেলিত, বঞ্চিত, পিছিয়ে পড়া মানুষদের নানা রকম ভাতা ও সম্মানী দিয়ে তাদের জীবনযাপনকে সহজতর করে দিচ্ছেন। এটি আমরা কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ করি। আর মুখ ও বধির ব্যক্তি, প্রতিবন্ধী ব্যক্তিরা ভবিষ্যতে কী করবে, তাদের কর্মের কী ব্যবস্থা হবে, এটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বোঝেন। সেজন্য প্রধানমন্ত্রী কিছু দিক-নির্দেশনা দিয়েছেন, সেটি আমরা অনুসরণ করে চলবো।

রাজশাহী বধির ফোরামের সভাপতি ফারুক হোসেনের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় বধির ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মোঃ রুহুল কুদ্দুস খান, এশিয়ান বধির ক্রিকেট কাউন্সিলর এর পরিচালক গাজী কামরুল হাসান। রাজশাহী বধির ফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোঃ শফিকুল আলম রাজুর সঞ্চালনায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে রাসিকের ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রজব আলী, কিশোর ফুটবল একাডেমির সভাপতি আরমান পারভেজ ধুলু সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ ও গণমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ