পুকুরে ডুবে রাবি শিক্ষার্থীর মর্মান্তিক মৃত্যু

আপডেট: মার্চ ১৭, ২০১৭, ১২:৪৮ পূর্বাহ্ণ

রাবি প্রতিবেদক



পুকুরে গোসল করতে নেমে পানিতে ডুবে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে রাজশাহী নগরের টিচার্স ট্রেনিং কলেজের পুকুরে এ ঘটনা ঘটে।
ওই শিক্ষার্থীর নাম হোসেন মো. ফাহিম। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি জামালপুর জেলায়।
ফাহিমের সহপাঠীরা জানান, ফাহিমের পিতা সিলেট টিচার্স ট্রেনিং কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ফরিদুল হক। এর আগে তিনি রাজশাহীতেও কর্মরত ছিলেন। তিনি বর্তমানে দুই মাসের প্রশিক্ষণে নিউজিল্যান্ডে আছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ে হলে কোনো সিট হওয়ায় ফাহিম রাজশাহী টিচার্স ট্রেনিং কলেজের হোস্টেলে থাকতেন।
রাজশাহী টিচার্স ট্রেনিং কলেজের শিক্ষক শাহীনুর রেজা জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে ফাহিম গোসল করবে বলে কক্ষ থেকে বের হয়। তার বন্ধুরা তাকে পুকুরে যেতে নিষেধ করলেও ফাহিম জোর করে একাই পুকুরে গোসল করতে নামে।
একটু পরে তার এক বন্ধু সেখানে গিয়ে দেখে মাঝপুকুরে ফাহিম ডুবে যাচ্ছে। ফাহিমের বন্ধু সাঁতার না জানায় চিৎকার শুরু করে। আশেপাশের লোকজন ছুটে আসতে আসতে ফাহিম ডুবে যায়। দ্রুত দমকল বাহিনীকে খবর দেওয়া হলে তারা এসে পুকুরের নিচ থেকে লাশ উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
নগরের রাজপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমান উল্লাহ বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠানো হচ্ছে। ময়নাতদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।