পুঠিয়ায় ফসলি জমিতে পুকুর খননের দায়ে চারজনের অর্থদ-

আপডেট: জানুয়ারি ৪, ২০১৭, ১২:১৭ পূর্বাহ্ণ

পুঠিয়া প্রতিনিধি


রাজশাহীর পুঠিয়ায় ফসলি জমিতে শ্রেণি পরিবর্তন না করে পুকুর খনন করার অপরাধে চারজনের প্রত্যেককে ৫ হাজার টাকা করে অর্থদ- প্রদান করেেছন ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার সাতবাড়িয়ায় এ অর্থদ- করা হয়।
উপজেলা পরিষদ সূত্রে জানা গেছে, গতকাল সকাল ১০টার দিকে পুঠিয়া উপজেলার শিলমাড়িয়া ইউনিয়নের সাতবাড়িয়ায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোছা. নাজমা নাহার ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। সরকারি দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কর্তৃক জনস্বার্থে জারীকৃত আদেশ আমান্য করা দ-নীয় অপরাধ। এ ধরনের অপরাধের কারণে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটতে পারে। এছাড়া কালেক্টর বাহাদুরের অনুমতি ব্যতিত শ্রেণি পরিবর্তন করে ধানী শ্রেণির জমিতে পুকুর খনন করার কারণে পরিবেশের ব্যাপক বিপর্যয় ঘটতে পারে। এ ধরনের অপরাধ যেন ভবিষ্যতে কেউ না করে এই লক্ষ্যে পুকুর খননের দায়ে পুঠিয়া উপজেলার শিলমাড়িয়া ইউনিয়নের ছাতারপাড়া গ্রামের মৃত সিরাজের ছেলে মকছেদ আলী (৩০) ও সৈয়দ আলী (৩৮), বগুড়ার ইব্রাহিমের ছেলে সজল (১৮) এবং নোয়াখলীর ছোটরামপুর গ্রামের আবদুল¬াহকে (২৫) আটক করে প্রত্যেকের ৫ হাজার টাকা করে অর্থদ- প্রদান করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।