পুঠিয়ায় ১৬ হাজার ৭৫০ তরুণ-তরুণীকে কারিগরি প্রশিক্ষণ দেয়া হবে

আপডেট: মার্চ ২৩, ২০১৭, ১২:৪০ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


জেলার পুঠিয়া উপজেলায় আগামী ৫ বছরের মধ্যে ১৫ থেকে ২৯ বছর বয়সী ১১ হাজার ৭২৫ জন নারীসহ ১৬ হাজার ৭৫০ জন তরুণ-তরুণীকে বহুমুখী উন্নয়ন কার্যক্রমের মাধ্যমে ক্ষমতায়ন এবং উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তোলা হবে।
জীবন ও জীবিকার উন্নয়নে চাকরি সংস্থানে এদের মধ্যে ২ হাজার যুবক-যুবতীকে তিন অথবা ছয় মাসের বৃত্তিমূলক ও কারিগরি প্রশিক্ষণ দেয়া হবে।
ইউসিইপি বাংলাদেশ এই প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করবে।
বুধবার এখানে পুঠিয়া উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে ‘এমপাওয়ার ইয়ুথ ফর ওয়ার্ক’ শিরোনামে পাঁচ বছর মেয়াদি প্রকল্পের সূচনা কর্মশালায় এ কথা বলা হয়।
প্রকল্পের সফল বাস্তবায়নের মাধ্যমে দক্ষ যুবশক্তি গড়ে তোলার বিষয়ে মতবিনিময় কর্মশালায় উপজেলা পর্যায়ের সকল কর্মকর্তা, ৪ ইউনিয়ন থেকে জনপ্রতিনিধিসহ ১২০ জনের বেশি প্রতিনিধি অংশ নেন।
অক্সফাম এবং ইউসিইপি বাংলাদেশের আর্থিক ও কারিগরি সহায়তায় টেকসই কৃষি ও আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন সংস্থা (এএসএসইডিও) এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে।
উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) শফিকুর আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম জুম্মা, বিশেষ অতিথি ছিলেন, দৈনিক সোনার দেশ সম্পাদক আকবারুল হাসান মিল্লাত।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, এএসএসইডিও’র নির্বাহী পরিচালক রবিউল আলম। এছাড়াও অক্সফাম প্রকল্প সমন্বয়ক জলি নুর হক এবং এএসএসইডিও’র প্রকল্প সমন্বয়ক অহিদুল ইসলাম প্রকল্পের লক্ষ্য, কার্যক্রম ও ফলাফল সম্পর্কে ধারণাপত্র তুলে ধরেন।
এগ্রিকালচার সাসটেইনেবল এন্ড সোসিও-ইকোনোমিক ডেভেলপমেন্ট অরগানাইজেশন (এসেডো) সংস্থার বাস্তবায়নে, ইউসেপ বাংলাদেশের কারিগরি সহায়তায় এবং অক্সফার্ম বাংলাদেশ এর অর্থায়নে প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ