পুলিশের নেতৃত্ব বুঝে নিলেন আবদুল্লাহ আল-মামুন

আপডেট: সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২২, ৮:৩০ অপরাহ্ণ

নতুন আইজিপি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুনকে দায়িত্ব অর্পন করেন বেনজীর আহমেদ

সোনার দেশ ডেস্ক:


আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শকের দায়িত্ব নিলেন র‌্যাব প্রধানের দায়িত্ব পালন করে আসা চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন।

শুক্রবারই পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক এম খুরশীদ হোসেন র‌্যাব প্রধানের দায়িত্ব নিয়েছেন বলে র‌্যাব সদরদপ্তরের এক বার্তায় জানানো হয়েছে।

চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন পুলিশ বাহিনীর নেতৃত্বে বেনজীর আহমেদের স্থলাভিষিক্ত হলেন। বয়স ৫৯ বছর পূর্ণ হওয়ায় অবসর প্রস্তুতি ছুটিতে গেছেন বেনজীর। বৃহস্পতিবার তিনি শেষ অফিস করেন।

গত ২২ সেপ্টেম্বর আল-মামুনকে পুলিশ প্রধান করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছিল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। একই প্রজ্ঞাপনে খুরশীদ হোসেনকে র‌্যাব প্রধানের দায়িত্ব দেওয়া হয়।

বেনজীরের মতোই র‌্যাব থেকে পুলিশ প্রধানের দায়িত্বে এলেন আল-মামুন। বেনজীর আইজিপি হওয়ার পর তিনি ২০২০ সালে র‌্যাব মহাপরিচালকের দায়িত্ব পেয়েছিলেন।

শুক্রবার বিকালে নানা আনুষ্ঠানিকতায় নতুন আইজিপিকে বরণ করে নেওয়ার পাশাপাশি বেনজীরকে বিদায় জানানো হয়।

পুলিশ সদর দপ্তরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, শুক্রবার বিকালে চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সে পৌঁছালে পুলিশের একটি সুসজ্জিত দল তাকে গার্ড অব অনার দেয়। নতুন আইজিপিকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান তার সহকর্মীরা।

আইজিপির দায়িত্ব নেওয়ার পরপরই আল-মামুন ধানম-ি ৩২ নম্বরে গিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এরপর তিনি রাজারবাগে পুলিশ স্মৃতিসৌধে গিয়ে মুক্তিযুদ্ধে জীবন উৎসর্গকারী বীর পুলিশ সদস্যদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

বিসিএস অষ্টম ব্যাচের কর্মকর্তা আল-মামুন গত বছরের ১৮ অক্টোবর গ্রেড-১ এ পদোন্নতি পান। চাকরির মেয়াদ পূর্ণ করে আগামী বছরের ১১ জানুয়ারি তার অবসরে যাওয়ার কথা রয়েছে।

আল-মামুনের জন্ম ১৯৬৪ সালে ১২ জানুয়ারি সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার শ্রীহাইল গ্রামে। তিনি পড়াশোনা করেছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাজবিজ্ঞান বিষয়ে।

১৯৮৬ ব্যাচের কর্মকর্তা আল-মামুন সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) পদে যোগ দেন ১৯৮৯ সালের ২০ ডিসেম্বর। কর্মজীবনে তিনি পুলিশ সদর দপ্তর, মহানগর পুলিশ, আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন এবং বিভিন্ন জেলা ইউনিটে দায়িত্ব পালন করেছেন। কাজ করে এসেছেন জাতিসংঘ শান্তি মিশনেও।

ঢাকা সদর দপ্তরের এআইজি (গোপনীয়) হিসেবে দায়িত্ব পালনের পর তিনি ঢাকা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি ও ডিআইজি ছিলেন। ২০১৯ সালের মে মাসে তিনি পদোন্নতি পেয়ে অতিরিক্ত আইজিপি হন।

কর্মক্ষেত্রে ভূমিকার জন্য আল-মামুন রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক (পিপিএম) এবং বাংলাদেশ পুলিশ পদকে (বিপিএম) ভূষিত হয়েছেন।
পুলিশের বিশেষায়িত শাখা র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) নতুন প্রধান খুরশীদ হোসেন দ্বাদশ বিসিএস (পুলিশ) ব্যাচের কর্মকর্তা।

সবশেষ তিনি পুলিশ সদর দপ্তরের অতিরিক্ত আইজিপি (ক্রাইম অ্যান্ড অপারেশনস) হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। খুরশীদের জন্ম ১৯৬৪ সালে গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে।
তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ