পুলিশ কর্মীকে খুনের বদলা, কাশ্মীরে এনকাউন্টারে নিকেশ ২ লস্কর জেহাদি

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২২, ১:০৪ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক :


কাশ্মীরে পুলিশ কর্মীর হত্যার বদলা। শ্রীনগরে গুলিযুদ্ধে নিকেশ দুই জেহাদি। উদ্ধার আগ্নেয়াস্ত্রও। সবমিলিয়ে ভূস্বর্গে জঙ্গিদমনে বড়সড় সাফল্য পেল যৌথবাহিনী।

শনিবার ভোররাতে শ্রীনগরের জাকুরা এলাকায় জেহাদিরা গাঢাকা দিয়ে রয়েছে বলে খবর মেলে। সেই সূত্র ধরে ওই এলাকায় গোপন অভিযান চালান যৌথবাহিনী। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়েই সতর্ক হয়ে যায় সন্ত্রাসবাদীরা।

তাদের আত্মসমপর্ণ করতে বলা হলেও সেকথা কানে তোলেনি তারা। বরং পুলিশকে লক্ষ্য করে এলোপাথারি গুলি ছুঁড়তে শুরু করে। জবাব দেয় বাহিনীও। গুলিযুদ্ধে দুই জেহাদির মৃত্যু হয়।

পুলিশ সূত্রে খবর, নিকেশ দুই জঙ্গি লস্কর-ই-তইবার সদস্য। তাদের কাছ থেকে ২টি পিস্তল-সহ বিপুল আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার হয়েছে। জানা গিয়েছে, এনকাউন্টারে নিহত ইকবাল হাকিম এক হেড কনস্টেবলকে খুনের মামলায় যুক্ত ছিল। অপরজনের নাম, পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

প্রসঙ্গত ৩০ জানুয়ারি জম্মু ও কাশ্মীরে সেনাবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে খতম হয় পাঁচ জঙ্গি। নিহত জেহাদিদের মধ্যে ছিল পাক মদতপুষ্ট সন্ত্রাসবাদী সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদের কমান্ডার জাহিদ ওয়ানি।

কাশ্মীর পুলিশের আইজিপি বিজয় কুমার টুইট করে জানিয়েছিলেন যে প্রায় ১২ ঘণ্টা ধরে বাহিনী ও জঙ্গিদের মধ্যে সংঘর্ষে চলে।

অবশেষে খতম হয় জইশ-ই-মহম্মদের কমান্ডার জাহিদ ওয়ানি-সহ পাঁচ জঙ্গি। নিহতদের মধ্যে একজন পাকিস্তানী সন্ত্রাসবাদীও রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

নিহতদের কাছ থেকে একে-৫৬ রাইফেল-সহ অন্যান্য অত্যাধুনিক হাতিয়ার ও নথি প্রচুর পরিমাণে পাওয়া গিয়েছে বলে খবর।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদি