পূর্ণাঙ্গ বাংলাকে দেখতে বাংলাদেশের ৬৪ জেলায় সাইকেলে ঘুরছেন অর্ঘ্য মণ্ডল

আপডেট: মার্চ ১৯, ২০২০, ১২:৩৬ পূর্বাহ্ণ

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি


ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কলকাতা শহরের ছেলে অর্ঘ্য মন্ডল। ভারতের রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সঙ্গীতে গ্রাজুয়েশন শেষ করেছেন ২০১৬ সালে। ভ্রমণ তার নেশা। নিজেকে ট্রাভেলার হিসেবেই পরিচয় দিতে স্বাচ্ছন্ন বোধ করেন। ঘুরে বেড়িয়েছেন তার দেশের এই প্রান্তর থেকে ওপ্রান্তর। কিন্তু একটা অপূর্ণতা কাজ করতো। অনেক দিনের ইচ্ছা পুরো বাংলাটাকে নিজ চোখে দেখবেন।
স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে ২০১৪ সালে বাবার ভাঙ্গা সাইকেল নিয়ে পশ্চিমবঙ্গ ঘুরতে বেরিয়ে পড়েন অর্ঘ্য। এবার বেড়িয়েছেন বাংলাদেশের ৬৪ জেলা ঘুরে দেখতে। ইতোমধ্যে ৫১টি জেলা ঘুরে দেখছেন। বুধবার রাতে অর্ঘ্য মন্ডল রাজশাহীতে এসে পৌঁছান। এসময় তাকে রাজশাহীর সাইক্লিস্ট কমিউনিটির সদস্যরা স্বাগত জানান। পরে অর্ঘ্য মন্ডল রাজশাহী প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করেন।
কলকাতার সাইক্লিস্ট অর্ঘ্য মন্ডল মতবিনিময়কালে জানান, ‘দুই বাংলার সাংস্কৃতিক মিলন ঘটানোর লক্ষ্যকে সামনে রেখে বাংলাদেশের ৬৪ জেলা ঘুরছেন। তার চেয়ে কথা তিনি বাংলার সন্তান। ইচ্ছা ছিলো পুরো বাংলাটাকে দেখবো। তাই বাংলাদেশের ৬৪টি জেলা নিজ চোখে দেখবো। বাংলার মানুষদের দেখবো। প্রত্যাশার চেয়ে বেশি পেয়েছি। সাদৃশ্য বেশি। তবে পার্থক্য আছে। এক জেলার সাথে আরেক জেলার। যেমন সুনামগঞ্জের মানুষরা যেভাবে গানকে ভালোবাসে অন্য কোথাও তা দেখা যায় না। যেখানেই যাই গানের সুর ভেসে আসে।
অর্ঘ্য মন্ডল বাংলাদেশে আসার পর করোনা ভাইরাসের আক্রমণের কথা শুনেছেন। যাত্রাপথে রাজশাহীর বাঘা উপজেলায় ‘তরুণ প্রজন্ম’র করোনা প্রতিরোধে সচেতেনামূলক প্রচারাভিযানে অংশ নেবেন। তিনি চান দুই বাংলার মানুষ করোনা থেকে মুক্ত থাকুক। ভালো ও সুস্থ থাকুক। সবশেষে দেশের মানিকগঞ্জ জেলায় পৌঁছে এই যাত্রা সমাপ্ত করবেন।
মতবিনিময়কালে রাজশাহী প্রেসক্লাব সভাপতি সাইদুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আসলাম-উদ-দৌলা, দ্যা বেইজ ক্যাম্প, বাংলাদেশের ব্রান্ড এম্বাসেডর পর্বাতারোহী ও ক্রস কান্ট্রি হাইকার শাহাদত হোসেন সরকার, সিনিয়র সাংবাদিক সুব্রত দাস, জামাল উদ্দিন, লং ডিস্টেন্স হাইকিং কমিউনিটি বাংলাদেশের ফাহিম আহম্মেদ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাইক্লিস্ট সাইমুম ইবনে মাসুদ, পাবনা সাইক্লিস্ট ফোরামের শরিফুল ইসলাম প্রমুখ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ