প্রকাশ ঝা-র মুখে কালি ছেটালেন বজরং দলের কর্মী, তাণ্ডব চলল ‘আশ্রম’-এর সেটে

আপডেট: অক্টোবর ২৫, ২০২১, ২:৪৫ অপরাহ্ণ

পরিচালকের মুখে কালি ছেটালেও কাউকে আঘাত করা হয়নি।

সোনার দেশ ডেস্ক


পরিচালক প্রকাশ ঝা-র ছবির সেটে ঢুকে তাঁর মুখে কালি ছিটিয়ে দিয়ে গেল বজরং দল। মধ্যপ্রদেশের ভোপালে পরিচালকের পরবর্তী ওয়েব সিরিজ ‘আশ্রম’-এর তৃতীয় সিজনের শ্যুটিং চলছিল। সেটে উপস্থিত ছিলেন ওয়েব সিরিজের মূল চরিত্রাভিনেতা ববি দেওল-সহ অন্যান্য কলাকুশলীরা। তবে তাঁরা কিছু বুঝে ওঠার আগেই প্রকাশের মুখে কালি ছিটিয়ে দেন বজরং দলের কর্মীরা।

হামলার কারণ ব্যাখ্যা করে পরে বজরং দল জানিয়েছে, তাদের আপত্তির কারণ প্রকাশের ওয়েব সিরিজের নাম। নাম না বদলালে তারা ছবির শ্যুটিং বন্ধ করার পাশাপাশি ছবির মুক্তিও আটকানোর ব্যবস্থা করবে।
বজরং দলের অভিযোগ, ‘‘পরিচালক ওয়েবসিরিজের নাম রেখেছেন আশ্রম। যে আশ্রম একটি ঐতিহ্যবাহী ভারতীয় সংস্কৃতি। কোনও একটি আশ্রমে ঘটা অপরাধের জন্য পরিচালক দেশের সব আশ্রমের দুর্নাম করতে পারেন না। ওয়েব সিরিজের ওই নাম রেখে আশ্রম সংস্কৃতির অবমাননা করেছেন ঝা।’’

রবিবার ভোপালের আরেরা হিলস এলাকায় পুরনো জেল চত্বরে শ্যুটিং চলছিল ‘আশ্রম’-এর। সেখানেই বজরং দলের কর্মীরা আচমকা এসে ভাঙচুর শুরু করেন। প্রথমে সেটে অপেক্ষমান গাড়িগুলিতে, পরে শ্যুটিংয়ের জিনিসপত্রও ভেঙে দেন তাঁরা। তবে পরিচালকের মুখে কালি ছেটালেও কাউকে আঘাত করা হয়নি। বজরং দলের আয়োজক সুশীল বলেছেন, ‘‘আমরা প্রকাশ ঝা-র মুখ কালো করে দিয়েছি। অভিনেতা ববি দেওলকেও খুঁজছি।’’

ঘটনার সময় ববি ‘আশ্রম’-এর সেটে থাকলেও পরে সম্ভবত নিরাপত্তার জন্য তাঁকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। ববিকে কেন খুঁজছেন জানতে চাওয়া হলে সুশীল বলেছেন, ‘‘ববির উচিত দাদা সানি দেওল, যিনি একজন অভিনেতা এবং বিজেপি সাংসদও, তাঁর থেকে শিক্ষা নেওয়া। উনি অনেক দেশপ্রেমের ছবি করেছেন।’’
যদিও এই ঘটনার পর বজরং দলের সঙ্গে প্রকাশের কথা হয়েছে বলে দাবি করেছেন বজরং দলের আয়োজক সুশীল। তিনি বলেন প্রকাশ তাঁদের দাবি মেনে ওয়েব সিরিজের নাম বদলাতে রাজি হয়েছেন।
তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ