প্রতিবন্ধী দিবসে জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল, প্রতিবন্ধীরা সমাজের অবিচ্ছেদ্য মানব বৈচিত্রেরই অংশ

আপডেট: ডিসেম্বর ৩, ২০২১, ৮:৫২ অপরাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক:


প্রতিবন্ধী দিবসের আলোচনায় জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল বলেন, বাংলাদেশের সংবিধানের প্রতিবন্ধীদের দেশের সকল নাগরিক সুযোগের সমতা নিশ্চিত করার কথা বলা হয়েছে। তাই ‘প্রতিবন্ধীরা সমাজের অবিচ্ছেদ্য মানব বৈচিত্রেরই অংশ’।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তাঁদের যথাযথ প্রশিক্ষণ ও তথ্যপ্রযুক্তি জ্ঞানের মাধ্যমে দক্ষ করে গড়ে তুলতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। ফলে প্রতিবন্ধীরাও বর্তমানে জাতীয় উন্নয়নে অবদান রাখছে সক্ষমতা অর্জন করেছে। শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) সকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় তিনি প্রধান অতিথির ভাষণ দিচ্ছেলেন।

দিবসের তাৎপর্য উল্লেখ করে জেলা প্রশাসক বলেন, বিশ্ব জুড়ে শারীরিক ও মানসিক প্রতিবন্ধিতার শিকার মানুষের জীবনমান উন্নয়ন ও সুরক্ষার অঙ্গীকার নিয়ে উদযাপিত হচ্ছে দিবসটি। বিশ্বে এ বছর ৩০তম আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস পালন করা হলেও বাংলাদেশ এবছর ২৩তম জাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস উদযাপন করছে। ধরন অনুযায়ী মানুষের মধ্যে প্রায় ১২ ধরনের প্রতিবন্ধিতা শনাক্ত করা হয়েছে। এগুলো হলো, অটিজম বা অটিজম স্পেকট্রাম ডিজঅর্ডারস, শারীরিক, মানসিক অসুস্থতাজনিত, দৃষ্টি, বাক প্রতিবন্ধিতা, বুদ্ধি এবং শ্রবণ প্রতিবন্ধিতা, সেরিব্রাল পালসি, ডাউন সিনড্রোম, বহুমাত্রিক এবং অন্যান্য প্রতিবন্ধিতা।

করোনা অতিমারি পরবর্তী টেকসই বিশ্ব গড়তে প্রতিবন্ধীদের অংশগ্রহণ ও নেতৃত্বের গুরুত্ব বিবেচনা করে এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে, ‘কোভিডোত্তর বিশ্বের টেকসই উন্নয়ন প্রতিবন্ধী ব্যক্তির নেতৃত্ব ও অংশগ্রহণ’। দিবসটি উপলক্ষে জেলা সমাজসেবা অধিদফতরের উদ্যোগে ১০ জন দৃষ্টি প্রতিবন্ধীকে সাদা ছড়ি ও ৩ জন প্রতিবন্ধীকে হুইল চেয়ার বিতরণ করা হয়।

জেলা প্রশাসন ও জেলা সমাজসেবা অধিদফতরের যৌথ আয়োজনে সভায় জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মোছা. হাসিনা মমতাজ এঁর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) মো. ইফতে খায়ের আলম। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের কর্মকর্তাবৃন্দসহ নগরীর প্রতিবন্ধীরা উপস্থিত ছিলেন।