প্রতিশোধ নিতে সাবেক সঙ্গিনীকে কামড়

আপডেট: ডিসেম্বর ১৩, ২০১৬, ১২:০৪ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



চোখে মুখে কামড়ের দাগ, ভাঙা নাক নিয়ে হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে এক নারী। তার সঙ্গে ঘটে গেছে মানব ইতিহাসের জঘন্যতম একটি ঘটনা।
প্রতিশোধ নিতে সাবেক সঙ্গীকে প্রলুদ্ধ করে বাড়িতে নিয়ে গিয়ে তাকে হিংস্রভাবে আক্রমন করে সাবেক পুরুষ সঙ্গী। এ ঘটনায় সেই পুরুষ সঙ্গীকে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে যুক্তরাজ্যে।
ডেইলি মেইলে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, এই পাশবিক ঘটনার শিকার হয়েছেন মেলোডি মুন নামের একজন নারী। তিনি সামারসেটের ইওলিন শহরের বাসিন্দা। তার সাবেক সঙ্গীর নাম জিমি মিশেল।
মুন তাকে ছেড়ে যাওয়ার বিষয়টি মানতে পারেননি জিমি। তাই তিনি মুনের ক্ষতি করার চিন্তা করেন। এরপর তাদের সমস্যার সমাধানের কথা বলে তার বাড়িতে নিয়ে সাবেক সঙ্গীকে হামলা করে।
মুন তার বাড়িতে গেলে জিমি হাত দিয়ে তার গলা চেপে ধরে এবং ঘুষি মারে। এরপর তার চুল ধরে জিমি বলে, ‘তুমি মরতে চলেছ।’ তিনি তার মুখে কামড় দেন যেন কেউ তার দিকে না তাকায়।
এ সম্পর্কে মুন বলেন, ‘যখনই তার মুখ আমার দিকে আসল আমি অবাক হয়ে অনুভব করলাম সে আমার শরীর, গাল, ঠোঁট এবং কানে কামড় দিচ্ছে।’
ভয়াবহ ঘটনার বর্ণনা দিয়ে তিনি আরো বলেন, ‘জিমি আমার মুখে ২১বার কামড় দিয়েছে। মনে হচ্ছিল সে আমাকে জ্যান্ত খেয়ে ফেলবে। আমি পরবর্তীতে যখন আমার প্রতিচ্ছবি দেখি নিজেকেই চিনতে পারিনি। এখন মনে হচ্ছে জিমিই ঠিক, কেউ আমার দিকে তাকাবে না। আমাকে দানবের মতো দেখাচ্ছে।’
ঘটনার সময় মুনের চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা পুলিশকে খবর দেয় এবং তারপর জিমিকে গ্রেপ্তার করে স্থানীয় পুলিশ। তারপর তাকে দুই বছরের সাজা দেওয়া হয় এবং মুনের সঙ্গে সকল যোগাযোগ বন্ধ করতে বলা হয়েছে।
মানসিক এবং শারীরিকভাবে ভীষণ বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছেন মুন। পোস্ট ট্রমাটিক স্ট্রেস ডিজঅর্ডারে ভুগছেন তিনি। এ বিষয়ে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। রাইজিংবিডি

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ