প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে তানোরে দুইশ বাস-মাইক্রো প্রস্তুত

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৭, ১:৪১ পূর্বাহ্ণ

ইমরান হোসাইন ও লুৎফর রহমান, তানোর


আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর বিকেলে উন্নয়নের বার্তা নিয়ে রাজশাহীর পবা উপজেলার হরিয়ান চিনিকল মাঠে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আগমন উপলক্ষে তানোর উপজেলাতে আওয়ামী লীগ চাঙ্গা হয়ে উঠেছে। ফলে নেতাকর্মীদের মাঝে সপ্তাখানেক আগ থেকে উৎসবের আমেজ বইছে। তার জনসভাকে সফল করতে ইতোমধ্যে দুই শতাধিক বাস ও মাইক্রো ভাড়া করা হয়েছে।
সেইসঙ্গে ব্যানার, ফেস্টুন ও বিভিন্ন মোড়ে দুই শতাধিক ফটক নির্মাণ করা হয়েছে। এসব ফটক ও ব্যানার ফেস্টুনে শেখ হাসিনার আগমনকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানানো শোভা পাচ্ছে। এসব দেখে মনে হচ্ছে পুরো উপজেলা জুড়ে উৎসবের আমেজ সৃষ্টি হয়েছে।
দলীয় সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর জনসভায় তার মূল্যবান বক্তব্য শোনার জন্য এবং তাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাতে রাজশাহী-১ (তানোর-গোদাগাড়ী) আসনের সাংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ওমর ফারুক চৌধুরীর পক্ষ থেকে তানোর আওয়ামী লীগের বিশ হাজার নেতাকর্মী প্রস্তুত রয়েছেন। সভায় তানোর উপজেলার বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনা নিয়ে কথা বলবেন সাংসদ ফারুক চৌধুরী। এছাড়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আগমনে তানোরবাসীর পক্ষ থেকে সাংসদ তাকে সালাম জানাবেন।
উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ-আল-মামুন জানান, প্রধানমন্ত্রীকে এক নজর দেখার জন্য তানোর আওয়ামী লীগ অধীর আগ্রহে বসে আছে। এজন্য সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। শুধু আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা নয়, সর্বস্তরের মানুষ তাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাতে নিজ উদ্যোগে দুইশটি বাস ও মাইক্রো ভাড়া করেছেন। এরমধ্যে ১০৪টি বাস ও ৯৬টি মাইক্রো রয়েছে। উপজেলার প্রত্যেক গ্রাম ও পাড়া মহল্লা থেকে বিশ হাজার মানুষ শেখ হাসিনার জনসভায় অংশ নেবেন।
তিনি আরো জানান, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে দারিদ্র জয় করে এগিয়ে চলেছেন দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়তে নিরলসভাবে কাজ করছেন। প্রধানমন্ত্রীর আগমনে রাজশাহী তথা তানোর উপজেলার বিভিন্ন উন্নয়নে আরো একধাপ এগিয়ে যাবে বলে জানান এই নেতা।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ