প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে বিভিন্ন ক্লাস্টার নেতৃবৃন্দের সঙ্গে রাসিক মেয়রের মতবিনিময়

আপডেট: জানুয়ারি ২৬, ২০২৩, ১২:৫৫ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ২৯ জানুয়ারি রাজশাহীতে আগমন উপলক্ষে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের প্রান্তিক জনগোষ্ঠী জীবনমান উন্নয়ন প্রকল্পের নীলনদ, আলোর সন্ধ্যান ও আশার আলো ক্লাস্টারের সিডিসি নেতৃবৃন্দের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (২৫ জানুয়ারি) বিকেলে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্কুলে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য ও সিটি মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র লিটন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে দেশের ব্যাপক অবকাঠামোগত উন্নয়ন হয়েছে। শুধু অবকাঠামোগত উন্নয়ন নয়; প্রান্তিক মানুষের জীবনমান উন্নয়নে বিভিন্ন ভাতা প্রদান, আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন, গৃহ নির্মাণসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়িত হচ্ছে। নারীর ক্ষমতায়ন হয়েছে, নারীরা রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করছেন। প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন প্রকল্পটির নামকরণ করেছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রীর সুযোগ্য নেতৃত্বে দেশে ব্যাপক উন্নয়ন দৃশ্যমান হয়েছে। পদ্মা সেতু, মেট্রোরেল চালু করা হয়েছে। মাথাপিছু আয় বৃদ্ধি পেয়েছে। উন্নয়নের এই ধারা অব্যাহত রাখতে আগামীতেও বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় রাখতে হবে। এর মধ্যে দিয়েই ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ একটি উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হবে।

মেয়র আরো বলেন, রাজশহীতে শিল্পায়ন ও কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। ইতোমধ্যে বিসিক শিল্প নগরী-২ এর কাজ শেষে হয়েছে। এখন প্লট বরাদ্দের অপেক্ষায় রয়েছে। এটি চালু হলে এখানেও মানুষের কর্মসংস্থান হবে।

মেয়র আরো বলেন, রাজশাহীতে এই প্রকল্পের মাধ্যমে গৃহিত তহবিল দিয়ে ব্যাংক গঠন কাজ এগিয়ে চলেছে। যার মাধ্যমে সিডিসির সদস্যরা উপকৃত হবেন। ইউএনডিপির এলইউপিসি প্রকল্পের মেয়াদ আরও বৃদ্ধি হচ্ছে। এর মাধ্যমে আগামীতে আরও কাজ করার সুযোগ সৃষ্টি হবে। এসএমই ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে নারী উদ্যোক্তাদের উৎসাহিত করতে কাজ করছে সরকার। এসএমই এর মাধ্যমে সরকার বিনা জামানতে ও বিনাসুদে ২ কোটি টাকা পর্যন্ত ঋণ প্রদান করছে। রাজশাহী মহানগরীর উন্নয়নে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২ হাজার ৮শ কোটি টাকার বৃহৎ প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছেন। সেই প্রকল্পের মাধ্যমে রাজশাহীকে সাজানো হচ্ছে। আগামী ২৯ জানুয়ারি রাজশাহীর ঐতিহাসিক মাদ্রাসা মাঠের জনসভায় উপস্থিত হয়ে আমরা প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতে চাই।

সভায় বক্তব্য দেন প্রান্তিক জনগোষ্ঠী সংগঠনের উপদেষ্টা আরিফুল হক কুমার, প্রকল্পের সদস্য সচিব ও রাসিকের প্রধান প্রকৌশলী নুর ইসলাম তুষার, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ শফিউল আলম, চীফ কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট অফিসার আজিজুর রহমান। ক্লাস্টার নেত্রী সোহেলী আক্তার মিতার সঞ্চালনায় সভায় মতবিনিময় সভায় নীলনদ, আলোর সন্ধ্যান ও আশার আলো ক্লাস্টারের বিভিন্ন সিডিসির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ