প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের কারণেই দেশে নারীদের জয়জয়কার : মেয়র লিটন

আপডেট: মার্চ ৮, ২০২১, ৯:২৮ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:


সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, দেশের প্রায় অর্ধেক জনগোষ্ঠী নারী। তাদের ঘরে বসে রেখে দেশের উন্নয়ন সম্ভব নয়। এটি অনুধাবন করেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারীর ক্ষমতায়ন করেছেন। নারীরা এখন ট্রেন চালাচ্ছে, সরকারের সচিব হচ্ছে, ডিসি, ইউএনও হয়েছে, পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবিসহ সব ক্ষেত্রে নারীদের অংশগ্রহণ বেড়েছে। পুরুষদের সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন নারীরা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের কারণেই বাংলাদেশে আজ নারীদের জয়জয়কার।
আন্তর্জাতিক নারী দিবস-২০২১ উদযাপন উপলক্ষে সোমবার (৮ মার্চ) দুপুরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে রাজশাহী জেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন মেয়র। এবারের প্রতিপাদ্য ছিল ‘করোনাকালে নারী নেতৃত্ব, গড়বে নতুন সমতার বিশ^’।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাসিক মেয়র বলেন, হাতে-কলমে কাজ শেখার জন্য সরকার বিভিন্ন কারিগারি প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলে সেখানে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেছে। নারীদের ঋণ সুবিধাও দিচ্ছে সরকারি ও বেসরকারি ব্যাংক। চাকরির আশায় বসে না থেকে উদ্যোক্তা হতে আগ্রহী হতে হবে, প্রশিক্ষণ নিয়ে কাজ শিখতে হবে। নারী উদ্যোক্তাদের যুগোপযোগী পণ্য তৈরি করতে হবে। গতানুগতিক ধারা থেকে তাদের বেরিয়ে আসতে হবে।
তিনি আরো বলেন, রাজশাহীতে শিল্পায়ন ও কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টিতে প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। ইতোমধ্যে দুইটি শিল্পাঞ্চল অনুমোদন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। বিসিক শিল্পনগরী-২ এর ভূমি উন্নয়ন কাজ চলছে। চামড়া শিল্প পার্কও প্রতিষ্ঠার কাজ এগিয়ে চলেছে। এসব নতুন শিল্প এলাকাতে প্রকৃত নারী ও পুরুষ উদ্যোক্তাদের প্লট বরাদ্দ দেওয়া হবে।
আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি বিশিষ্ট সমাজসেবী ও নারীনেত্রী শাহীন আকতার রেনী। তিনি তাঁর বক্তৃতায় বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একজন নারীবান্ধব প্রধানমন্ত্রী। দীর্ঘদিন যাবৎ নারীর ক্ষমতায়নে তিনি কাজ করে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রীর কারণেই নারীরা ক্ষমতায়নে সাফল্য অর্জন করেছে। তাঁর জন্যই দেশের প্রতিটি ক্ষেত্রে নারীদের অবাধ বিচরণ। এখন আমরা যদি সকলে নিজ পরিবার থেকে সচেতন হয়, নিজেদের মানসিকতার পরিবর্তন করি, তাহলে নারীরা আরো এগিয়ে যাবে।
রাজশাহীর জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিলের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, সংরিক্ষত নারী আসনের সংসদ সদস্য আদিবা আনজুম মিতা, সাবেক সংসদ সদস্য ও মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক জিনাতুন নেসা তালুকদার, জাতীয় মহিলা সংস্থা রাজশাহীর চেয়ারম্যান বেগম মর্জিনা পারভীন। সভায় প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন মহিলা বিষয়ক অধিদফতর রাজশাহীর উপপরিচালক শবনম শিরিন।
আলোচনা সভায় আগত অতিথিবৃন্দ মুক্তিযুদ্ধ, মুজিব শতবর্ষসহ করোনা পরিস্থিতিতে নারী নেতৃত্ব এবং নারীর বলিষ্ঠ অবদান তুলে ধরে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য প্রদান করেন। মুজিব শতবর্ষ উদ্যাপন উপলক্ষে আগামী ১৭ মার্চ ২০২১ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের জন্ম দিবস ও জাতীয় শিশু দিবসে বঙ্গবন্ধুর উপর কুইজ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য ২০ জন ছাত্র-ছাত্রীর মাঝে বঙ্গবন্ধুর স্বরচিত ‘কারাগারের রোজনামচা’ বইটি বিতরণ করা হয়। এছাড়াও অনুষ্ঠানে মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন মহিলা বিষয়ক অধিদফতর, রাজশাহী কর্তৃক পরিচালিত ই-প্লাটফরমের উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ, ছাত্র-ছাত্রী, বিভিন্ন মহিলা সমিতির সভানেত্রী ও সদস্যবৃন্দ, বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ অংশ নেন।