প্রশিক্ষক প্রশিক্ষণ কোর্স উদ্বোধনকালে গওহর রিজভী বাল্যবিয়ে একটি মেয়ের শৈশব ও শিক্ষার মৃত্যু ঘটায়

আপডেট: এপ্রিল ৩০, ২০১৭, ১২:২০ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


প্রশিক্ষক প্রশিক্ষণ কোর্স উদ্বোধন অনুষ্ঠানে ড.গওহর রিজভীসহ অতিথিরা- সোনার দেশ

প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী বলেছেন, বাল্যবিয়েকে একটি মারাত্মক অপরাধ হিসেবে গণ্য করতে হবে। এটি মানবাধিকার লঙ্ঘনের চূড়ান্ত রূপ। কেননা বাল্যবিয়ে একটি মেয়ের শৈশব ও শিক্ষার মৃত্যু ঘটায়। শৈশব একবারই আসে। সেই শৈশবকে আমরা ধ্বংস করে দিচ্ছি।
তিনি বলেন, বাল্যবিয়ে দিয়ে শিশুর মৃত্যু ঘটান হচ্ছে। এটিকে আর সামাজিক প্রথা হিসেবে   মেনে নেয়া যায় না। প্রত্যেকটি মানুষের জন্য এটা গুরুত্বপূর্ণ। বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ করা শুধুই প্রধানমন্ত্রীর অগ্রাধিকার নয়Ñ এটি প্রত্যেকের ব্যক্তিগত অগ্রাধিকার। প্রতিটি অভিভাবকের অগ্রাধিকার। আমরা প্রতিটি মেয়ের শৈশব সুরক্ষিত চাই, তাদের শিক্ষা ও উন্নয়ন চাই। এই অগ্রাধিকারের বার্তা মানুষের দৌড়গোড়্য় আপনাদের পৌঁছে দিতে হবে। বাল্যবিয়ের কুফল সম্পর্কে তৃণমূল মানুষদের উদ্বুদ্ধ করতে হবে।
তিনি গতকাল শনিবার সকালে স্থানীয় সার্কিট হাউসের সম্মেলন কক্ষে উদ্ভাবনী উপায়ে বাল্যবিয়ে নিরোধে মাঠ পর্যায়ে করণীয় শীর্ষক প্রশিক্ষক প্রশিক্ষণ (ঞঙঞ) কোর্স উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির ভাষণ দিচ্ছিলেন।
রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ের আয়োজনে এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের গভর্নেন্স ইনোভেশন ইউনিটের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত প্রশিক্ষণ কোর্সে রাজশাহী বিভাগের জেলা প্রশাসক, নির্বাহী কর্মকর্তা ও জরপ্রতিনিধিগণ অংশ নেন।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার মো. নূর-উর-রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের গভর্নেন্স ইনোভেশন ইউনিটের মহাপরিচালক মো. আব্দুল হালিম। স্বাগত বক্তব্য দেন, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (শিক্ষা ও আইসিটি) সুলতান আব্দুল হামিদ। এ ছাড়াও অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্তি বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) মো. আমিনুল ইসলাম।
সভাপতির সমাপনী বক্তব্যে বিভাগীয় কমিশনার বলেন, বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে বিয়ে রেজিস্ট্রার, জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের কর্মকর্তাদের দায়িত্ব ও ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে দরিদ্র জনগোষ্ঠিকে বাল্যবিয়ের কুফল সম্পর্কে উদ্বুদ্ধ করা, সচেতন করাই আমাদের কাজ। ১৫ বছর পূর্ণ হলেই বাবা-মা মেয়ের বিয়ে দেয়ার জন্য ব্যতিব্যস্ত হয়ে পড়েন, এই বয়সের মেয়েরা খুবই ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় থাকে। এই ১৫ কে ১৮ তে নিয়ে যাওয়ার কাজটি খুবই দুরূহ কিন্তু মোটেও তা অসম্ভব নয়। সেই অসম্ভবকে আমাদেরই সম্ভব করে তুলতে হবে।
তিনি প্রশিক্ষণ কোর্সে উপস্থিত অংশীজনদের সমর্থন নিয়ে রাজশাহী বিভাগই প্রথম বাল্যবিয়েমুক্ত বিভাগ করার প্রত্যয় ঘোষণা করেন।