‘প্রিয় ফরম্যাট’ বলেই আগ্রাসী সাব্বির

আপডেট: নভেম্বর ১৩, ২০১৬, ১১:৩৭ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক
সাব্বির কথার প্রসঙ্গে প্রায়ই বলেন তার ‘প্রিয়’ ফরম্যাট টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট। এই ফরম্যাটে আগ্রাসী ভাব দেখানোর সবচেয়ে বেশি সুযোগ থাকে। আর এই কারণেই তিনি এই ফরম্যাটে খেলতে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন।
গতকাল রোববার মিরপুরে শ্বাসরুদ্ধকর এক ম্যাচের নাটক মঞ্চায়িত হয়েছে। এই নাটকের মূল চরিত্রে অভিনয় করছেন মুশফিকুর রহিম ও সাব্বির রহমান। রাজশাহী কিংসের বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান সাব্বির গেইলকে উড়িয়ে দিয়ে ১২২ রান করে বিপিএলে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রানের মালিক বনে যান। ৯ চার ও ৯ ছয়ে ৬১ বল খেলে তিনি আগ্রাসী এই ব্যাটিং করেন।
ম্যাচ শেষে স্বভাবতই তিনি জানালেন পুরোনো সেই কথা। প্রিয় ফরম্যাট বলেই এমন আগ্রাসী মনোভাব দেখানো, ‘টি-টোয়েন্টিকে সব সময় আমার খেলা মনে করি। আমি এই ফরম্যাট খেলেই জাতীয় দলে সুযোগ পেয়েছি। ওখান থেকে টেস্ট দলে সুযোগ পেয়েছি। আমি বিশ্বাস করি এটা আমার ফরম্যাট। এই কারণেই মূলত সাফল্য পাচ্ছি।’
গতকাল রোববার ৬১ বল খেলে ১২২ রান করলেও সাব্বিরের বিশ্বাস অন্য কেউ এসে ঠিকই এটা ভেঙে ফেলবে, ‘আমি জানতাম, আজ না হলে কাল; এই ফরম্যাটে একদিন আমি বড় স্কোর গড়বোই। আজকে আমি ৬১ বলে ১২২ রান করে রেকর্ড করেছি। আমি জানি এই রেকর্ড ভাঙতে আরেকজন চলে আসবে।’
মারকুটে সাব্বির প্রতিপক্ষ বোলারদের উপর চড়াও হওয়ার পর সফল হয়েই ভিন্নধরনের উল্লাসে মাতেন। অনেক ক্ষেত্রে গ্যালারি-ড্রেসিংরুমের দিকে হাত ছুড়ে নানান ধরনের ভঙ্গিতে উদযাপন করেন সাব্বির। আর এতেই নাকি ভালো খেলার প্রেরণা খুঁজে পান তিনি, ‘এটা আমার শক্তি। আমি যখন পজেটিভ থাকি তখন বেশিরভাগ সময় এমন উদযাপন করি। তখন আমার কাছে নিজেকে অনেক সামর্থ্যবান মনে হয়। এমনভাবে উদযাপন করে আমি পরের বলের জন্য ভালো করে প্রস্তুত হতে পারি। বিষয়টি আমি দারুণ উপভোগ করি-বলা চলে।’
১২২ রানের টর্নেডো ইনিংস খেলেও হাসি নেই সাব্বির রহমান রুম্মনের মুখে। কারণ দল যে হেরে গেছে ৪ রানে। সাব্বির বলেছেন, ‘মনের আনন্দ ম্যাচ জেতার উপরই নির্ভর করে। ১০০ রান করে হারলে সেই অনুভূতি থাকে না। ১০০ করে ম্যাচ হেরেছি, এটা আসলে খুব খারাপ লাগার মতোই বিষয়। এই ম্যাচটা হারা আমাদের উচিত হয় নি। আমাদের উচিত ছিল এই ম্যাচটা জেতা।’
তিনি আরো যোগ করেন, ‘আসলে দলের জয়টাই বড় ব্যাপার। তাতে আমি এক রান করি আর দশ রান-এটা গুরুত্বপূর্ণ নয়। আজকে ১২২ রান করেছি ভালো লাগছে। কিন্তু হেরে আফসোস লাগছে।’
রান চেজ করার ক্ষেত্রে কী পরিকল্পনা থাকে জানতে চাইলে সাব্বির বলেছেন, ‘আমি যখন টি-টোয়েন্টি চেজ করি, তখন আমি স্কোরবোর্ডের দিকে তাকাই। আমি তখন রান রেট ফলো করি। পরিকল্পনা থাকে রান রেটটাকে ৫-৬ নামিয়ে নিয়ে আসা। আমি সব সময় দলের পরিস্থিতি বিবেচনা করেই খেলার চেষ্টা করি। ঢাকার সঙ্গে ম্যাচ খেলে ৩১ রান করেছি। ওটা এক রকম ম্যাচ ছিল। এটা আরেক রকম ম্যাচ হয়েছে।’-বাংলা ট্রিবিউন