‘ফাইজারের টিকা ৫-১১ বছরের শিশুদের জন্য নিরাপদ’

আপডেট: সেপ্টেম্বর ২০, ২০২১, ৮:১২ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক:


পাঁচ থেকে ১১ বছর বয়সী শিশুদের জন্য ফাইজার-বায়োএনটেকের করোনাভাইরাসের টিকা নিরাপদ বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। ক্লিনিকাল ট্রায়ালের ফলাফলের ভিত্তিতে সোমবার বিষয়টি নিশ্চিত করেন তারা। শিগগির অনুমোদনের জন্য আবেদন করা হবে বলে বিবৃতিতে জানানো হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের জায়ান্ট ফাইজার ও জার্মান জৈবপ্রযুক্তি কোম্পানি বায়োএনটেক এক যৌথ বিবৃতিতে জানিয়েছে, ক্লিনিকাল ট্রায়ালে পাঁচ থেকে ১১ বছর বয়সী অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে এটি ছিল নিরাপদ ও সহনশীল। শক্তিশালী এন্টিবডি তৈরির ক্ষেত্রেও ভালো ফল দেখিয়েছে এটি। যত দ্রুত সম্ভব ইউরোপীয় ইউনিয়ন, যুক্তরাষ্ট্র ও বিশ্বের অন্যান্য দেশে অনুমোদনের জন্য তথ্য-উপাত্ত জমা দেওয়ার কথাও জানায় তারা। ক্লিনিকাল ট্রায়ালে দুই ডোজ টিকা দেওয়ার ব্যবধান ২১ দিন ছিল।

১২ বছর বয়সীদের নিচে এবারই ফাইজারের টিকার ট্রায়ালে এমন ফলাফল পাওয়া গেলো, যদিও মডার্নার টিকা ১১ বছর বয়সীদের দেওয়ার ক্ষেত্রে এখনও ক্লিনিকাল ট্রায়ালে রয়েছে।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে বিশ্বজুড়ে ১২ বছর ঊর্ধ্ব সব বয়সী মানুষকে ফাইজার ও মডার্নার টিকা দেওয়ার কার্যক্রম চলছে। করোনাভাইরাসে শিশুদের আক্রান্ত হওয়ার ক্ষেত্রে কম ঝুঁকি থাকলেও ডেল্টা ধরন পরিস্থিতির অবনতি ঘটাতে পারে, এমন আশঙ্কা রয়েছে। বিশেষ করে মহামারির মধ্যে স্কুল খোলা শুরু হয়েছে, ফলে শিশুদের আক্রান্তের ঝুঁকিও বেড়ে গেছে।

জুলাই থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় শিশুদের আক্রান্তের হার ২৪০ শতাংশ বেড়ে গেছে উল্লেখ করে ফাইজারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আলবার্ট বোরলা বলেন, আমরা এ তরুণ জনগোষ্ঠীকে ভ্যাকসিনের মাধ্যমে সুরক্ষা দেওয়ার কাজ প্রসারিত করতে আগ্রহী।
তথ্যসূত্র: এএফপি, এনডিটিভি, জাগোনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ