ফুটপাথে চলতে স্বচালিত স্কুটার

আপডেট: নভেম্বর ২৩, ২০১৬, ১০:২০ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক
নিজের ফোনে সম্পূর্ণ মনোযোগ দিয়ে রাখেন এমন পথচারীদের দূর্ঘটনা কমাতে নতুন এক সমাধান নিয়ে এসেছেন সিঙ্গাপুরের একদল গবেষক। আনা হয়েছে একটি স্বচালিত স্কুটার, যা দিয়ে পথচারীরা ফুটপাথে চলাচল করতে পারবেন।
একটি আসন আর চারটি চাকাযুক্ত ৫০ কেজির এই যানের সর্বোচ্চ গতি ঘণ্টায় ছয় কিলোমিটার। বাঁধা এড়িয়ে দিক নির্দেশনা পেতে এতে ব্যবহার করা হয়েছে লেজার সেন্সর।
দেশটির ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অফ সিঙ্গাপুর (এনইউএস)-এর বানানো এই স্কুটার সেখানে স্বচালিত যান নিয়ে করা সর্বশেষ পরীক্ষা বলে জানিয়েছে রয়টার্স। স্থান আর শ্রম সীমাবদ্ধতার চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় দেশটি স্বচালিত প্রযুক্তি নিয়ে আগাতে প্রচেষ্টা চালাচ্ছে।
এই স্কুটার বিশ্ববিদ্যালয়টির ক্যাম্পাসে চালানো পরীক্ষায় সফল হয়েছে বলে জানান নির্মাতারা। তারা আরও জানান, এটি সব বয়সের মানুষের চলাচল উন্নত করবে আর এর মাধ্যমে গাড়ির প্রয়োজনীয়তা ও দুর্ঘটনার হার কমবে।
এনইউস-এর সহযোগী অধ্যাপক ও এই গবেষণার দলনেতা মার্সেলো অ্যাং জুনিয়র বলেন, “আমি নিশ্চিত আপনি এমন লোক দেখেছেন যারা হাঁটার সময় শুধু তাদের হাতের ফোন ব্যবহার করেন, আর প্রায়ই আপনাদের সঙ্গে ধাক্কা খায়ৃ তাই এটি সুন্দর হবে যদি আপনি শুধু বসে থেকেই ইমেইল চেক করতে থাকেন। আমরা আপনাকে পছন্দের অপশন বাড়িয়ে দিয়েছি। ”
এই স্কুটার দেশটির অন্যান্য স্বচালিত যানের সঙ্গে মানিয়ে চলতে পারবে বলে জানান তিনি। আর সরু রাস্তাগুলোর কথা মাথায় রেখে বানানো হয়েছে যেখানে বড় যানগুলো প্রবেশ করতে পারে না। বর্তমানে কোনো বাধা সামনে এলে স্কুটারটি তা হিসাব করে বিকল্প পথ খুঁজতে কিছুটা সময় নেয়। এটি আরও উন্নত করতে দলটি কাজ করে যাচ্ছে বলে জানান এই গবেষক।
যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি (এমআইটি), সিঙ্গাপুর-এমআইটি অ্যালায়েন্স ফোর রিসার্চ অ্যান্ড টেকনোলজি (স্মার্ট) আর এনইউএস সম্মিলিত ভাবে এই প্রকল্প নিয়ে কাজ করছে। এটি নিয়ে আরও পরীক্ষা চালানো হবে ও এখনই বাণিজ্যিকভাবে ছাড়া হবে না।-বিডিনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ