ফুটবলের টানে চারঘাট মাঠে শত শত দর্শক!

আপডেট: অক্টোবর ১৫, ২০১৬, ১১:৪৬ অপরাহ্ণ

চারঘাট থেকে আমানুল হক আমান
আন্তর্জাতিক ক্রীড়াঙ্গনে ক্রিকেটে ভালো করছে বাংলাদেশের ছেলেরা। সেক্ষেত্রে ফুটবলে পারছে না। এনিয়ে নিয়ে বাঙালিদের যে ফুটবল থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। এটা বলা যাবে না। দেশের আনাচে-কানাচে যেখানেই ফুটবল ম্যাচ হয় প্রাণের খেলা উপভোগ করার জন্য ছুটে আসেন দর্শকরা। ঠিক কাল শনিবার থেকে আন্তঃউপজেলা জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ ফুটবল প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী ম্যাচে ছিল শত শত ফুটবলপ্রেমীরা।
৫১ বছর ছুই ছুই মিজানুর রহমান। ফুটবল খেলা দেখতে এসেছেন। আগে আসতে চেয়েও বাড়ি দূরের কারণে ফুটবল মাঠে পৌঁছতে পারে নি। মাঠে কোন স্থানে দাঁড়ানোর জায়গা পায় নি তিনি। ফলে মাঠের পাশে একটি বাড়ির দোতালার ছাদের উপর উঠে খেলা দেখছিলে তিনি। মিজানুরের বাড়ি চারঘাট উপজেলার ডাকরা গ্রামে। তার বাড়ি চারঘাট সদর থেকে প্রায় ১০ কিেিলামিটিার উত্তর দিকে। এলাকায় যেখানেই ফুটবল খেলা হয়, সেখানেই তিনি খেলা দেখতে যান। তার খেলা দেখা নেশা। তবে তিনি একজন দিন মুজুর। তিনি বলেন, শনিবার মাঠে গরুর জন্য ঘাস সংগ্রহ করতে যান। এ সময় রাস্তা দিয়ে মাইকিং চলছে। ঘাস কাটা বাদ দিয়ে মনোযোগ সহকারে মাইকিং শুনেন। তিনি জানতে পারে শনিবার বিকেল ৩টা থেকে চারঘাট পাইলট উচ্চবিদ্যালয় মাঠে ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। ঘাস কেটে বাড়িতে এসে গোসল সেরে খাওয়া দাওয়া করে ১০ কিলোমিটার দূর থেকে রওনা হয় খেলা দেখার জন্য। তাই পৌঁছতে দেরি হওয়ায় মাঠের কোন স্থানে জায়গা না পেয়ে মাঠের পূর্বদিকে এক বাড়ির ছাদে উঠে খেলা দেখেন। তার সাথে আরো অনেকেই মাঠে জায়গা না পেয়ে ছাদের উপর উঠে খেলা দেখতে দেখা গেছে। এই খেলা উপলক্ষে চারঘাট এলাকায় হাজারও মানুষ ছুটে এসেছিলেন ফুটবল ম্যাচ দেখতে। এর মধ্যে অনেকেই পুরানো বন্ধুর সাথে দেখা হয়ে আলাপ চারিতা করতে দেখা গেছে।
চারঘাট পাইলট উচ্চবিদ্যালয়ের গেটের সামনে একটি চায়ের দোকানে ফুটবল খেলা দেখতে এসে বন্ধুদের সাথে আলাপ করতে দেখা গেছে। খেলা উপলক্ষে তার অন্যদিনের চেয়ে অনেক বেশি বিক্রি হয়েছে বলেও চা স্টলের মালিক জানান। কিন্তু দর্শকরা কাক্সিক্ষত গোলের দেখা পায়নি। তবে চারঘাট ও দুর্গাপুর উপজেলা দলের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে ফুটবলের জয়গান শুনা গেছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ