ফুটবল দুনিয়া কাঁদছে লরির জন্য

আপডেট: জুলাই ৯, ২০১৭, ১:১৪ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


মাত্র ৬ বছরের আয়ু নিয়ে এই দুনিয়ায় এসেছিল ব্র্যাডলি লরি। কাল সে চলে গেল নাফেরার দেশে। মাত্র ১৮ মাস বয়সে শরীরে প্রাণঘাতী ক্যানসার বাসা বাঁধার পর ফুটবল দুনিয়ার গভীর সখ্য গড়ে উঠেছিল ফুটবল–অন্তঃপ্রাণ শিশুটির সঙ্গে। কিন্তু সেই ভালোবাসার বাঁধনটা ছিঁড়তেই হলো শেষ পর্যন্ত।
লরির মৃত্যু হয়েছে মা–বাবার কোলেই। খবরটা তাঁরাই জানিয়েছেন ফেসবুকে। সান্ডারল্যান্ডের সমর্থক লরির চিকিৎসার জন্য উঠেছিল লাখ লাখ পাউন্ড। সবার কায়মনো-প্রার্থনা ছিল, বিধাতা যেন তাঁর শক্তির বলে সুস্থ’ করে দেন মায়াভরা চোখের এই শিশুকে। কিন্তু‘ ক্যানসার তাকে ছিনিয়েই নিয়ে গেল জোর করেই, সবার ভালোবাসার মাঝখান থেকে। ইংল্যান্ড ছাড়িয়ে পুরো ফুটবল বিশ্বই ভালোবেসে ফেলেছিল এই সান্ডারল্যান্ড–ভক্তকে। চিকিৎসকেরা অনেক চেষ্টা চালিয়েছেন। কিš‘ ক্যানসার যে প্রাণঘাতী হয়েই বাসা বেঁধেছিল ছোট্ট লরির শরীরে।
লরির জন্য গত মৌসুমে বিশেষ আয়োজন হয়েছিল সান্ডারল্যান্ড-এভারটন ম্যাচে। ছোট্ট শিশুটির নামে সেদিন স্লোগান তুলে গ্যালারি মুখর করেছিলেন দর্শকেরা। সান্ডারল্যান্ডের জার্সি পরে মাঠে নেমে সে একটি ‘গোল’ও করেছিল। পেনাল্টি থেকে পরাস্ত করেছিল এভারটনের গোলকিপার বোগোভিচকে। পুরোটাই ছিল লরির জন্য এক আনন্দ আয়োজন। সেই আয়োজন লরি উপভোগ করেছিল, কিš‘ ফুঁপিয়ে কেঁদেছিল গোটা গ্যালারি। সান্ডারল্যান্ড কিংবা এভারটনের সব ফুটবলার তাকে কোলে নিয়ে আদর করেছিলেন। গ্যালারিতে উঠেছিল প্রার্থনাÍসৃষ্টিকর্তা যেন ক্যানসার সারিয়ে মা–বাবার কোলে ফিরিয়ে দেন লরিকে। এই তো সেদিন ইংল্যান্ড-লিথুনিয়া ম্যাচেও সে মাঠে নেমেছিল। কিš‘ সবাইকে কাঁদিয়ে সে এখন দূর আকাশের তারা। সূত্র: বিবিসি

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ