ফেসবুকের বিরুদ্ধে রোহিঙ্গাদের ১৫ হাজার কোটি ডলারের মামলা

আপডেট: ডিসেম্বর ৭, ২০২১, ১:০৬ অপরাহ্ণ

লাখ লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে আসে

সোনার দেশ ডেস্ক :


যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত বেশ কয়েকজন রোহিঙ্গা ফেসবুকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। সোস্যাল মিডিয়া জায়ান্টটিকে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে ঘৃণা ছড়াতে দেওয়ায় অভিযুক্ত করা হয়েছে।
ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, মামলা দায়ের করা রোহিঙ্গারা ১৫ হাজার কোটি ডলার ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন।

মামলায় দাবি করা হয়েছে ফেসবুক প্লাটফর্ম নিপীড়িত জনগোষ্ঠীটির বিরুদ্ধে সহিংসতা উস্কে দিয়েছে। বৌদ্ধ সংখ্যাগরিষ্ঠ মিয়ানমারে ২০১৭ সালে সেনা অভিযানের সময় প্রায় দশ হাজার রোহিঙ্গা মুসলিম নিহত হয় বলে ধারণা করা হয়ে থাকে।
ফেসবুকের প্যারেন্ট কোম্পানি মেটা তাৎক্ষণিকভাবে ওই অভিযোগ সম্পর্কে কোনও প্রতিক্রিয়া দেখায়নি। কোম্পানিটির বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে, ঘৃণাপূর্ণ প্রচার এবং বিপজ্জনক অপতথ্য বছরের পর বছর ধরে চলতে দিয়েছে কোম্পানি।

যুক্তরাজ্যে কয়েকজন শরণার্থীর প্রতিনিধিত্ব করা ব্রিটিশ আইনি প্রতিষ্ঠান ফেসবুককে চিঠি দিয়ে অভিযোগের বিষয়ে অভিহিত করেছে। এতে অভিযোগ করা হয়েছে ফেসবুকের অ্যালগরিদম রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে ঘৃণাবাদী বক্তব্য ছড়াতে সহায়তা করেছে। এছাড়া কোম্পানিটি রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সহিংসতায় উস্কানি দেওয়া পোস্ট নামিয়ে ফেলতে কিংবা মুছে ফেলতে ব্যর্থ হয়েছে

। আরও অভিযোগ করা হয়েছে দাতব্য প্রতিষ্ঠান ও সংবাদমাধ্যম সতর্ক করলেও সময় মতো ব্যবস্থা নিতে ব্যর্থ হয়েছে ফেসবুক।
যুক্তরাষ্ট্রে সান ফ্রান্সিসকোতে ফেসবুকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এতে অভিযোগ করা হয়েছে, দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার একটি ছোট দেশে বাজার ধরতে ফেসবুক রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর জীবনকে বাজি ধরেছে।

২০১৮ সালে ফেসবুক স্বীকার করে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সহিংসতা ও ঘৃণা ছড়াতে তারা যথেষ্ট ব্যবস্থা নিতে ব্যর্থ হয়েছে।
যুক্তরাষ্ট্রের আইন অনুযায়ী ব্যবহারকারীদের পোস্ট করা কন্টেন্ট নিয়ে ফেসবুক ব্যাপকভাবে সুরক্ষিত। তবে নতুন দায়ের করা মামলায় মিয়ানমারের আইনি যুক্তি তুলে ধরা হয়েছে। ওই আইনে এই ধরনের সুরক্ষা না থাকায় এই মামলায় ফেসবুক বিপদে পড়তে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।- বাংলা ট্রিবিউন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ