বগুড়ার পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৮, আহত ১৩

আপডেট: মার্চ ২৬, ২০২০, ১২:০২ পূর্বাহ্ণ

বগুড়া প্রতিনিধি


বগুড়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ৮ জন নিহত এবং ১৩ জন আহত হয়েছে। বগুড়াÑঢাকা মহাসড়কে গতকাল বুধবার জেলার শেরপুর উপজেলায় ৩টি পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় এই হতাহতের ঘটনা ঘটে। নিহতদের মধ্যে বিকেল পর্যন্ত ৬ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। আহতরা বগুড়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। নিহতরা হলো-মঞ্জুরুল ইসলাম, মোহাম্মাদ আলী, রাকিব ইসলাম, মো. রাজু, সাদ্দাম মৃদুল হোসেন।
হাইওয়ে ও শেরপুর থানা পুলিশ জানায়, দুপুর পৌনে ১২ টার দিকে শেরপুর উপজেলার ঘোগাবটতলা এলাকায় রংপুরগামী একটি লবন বোঝাই ট্রাকের সঙ্গে ঢাকাগামী একটি যাত্রিবাহী বাসের মুখোমুখী সংঘর্ষ হয়। ট্রাকে লবনের বস্তার ওপর বেশ কিছু যাত্রী ছিলো। তারা ঢাকা থেকে ফিরছেলেন। দুর্ঘটনায় ট্রাকটি রাস্তার পাশে উল্টে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার কাজ শুরু করে। ঘটনাস্থলেই ৪ জন মারা যায়। বগুড়া ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক আবদুল হামিদ জানান, তাদের ৫টি ইউনিট ঘটনাস্থলে উদ্ধার কাজ চালায় এবং পুলিশের সহায়তায় হতাহতদের উদ্ধার করে এবং আহতদের মধ্যে ১০ জনকে হাসপাতালে পাঠায়। এদের মধ্যে শজিমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকেলে আরো ২ জন মারা যায়।
হাইওয়ে পুলিশ জানিয়েছে, লাব্বাইক পরিবহনটি ঢাকার অভ্যন্তরীন রুটের গাড়ি। যাত্রী নিয়ে উত্তরাঞ্চলে এসেছিলো। যাত্রী নামিয়ে দিয়ে বাসটি ঢাকায় ফিরছিলো। ফিরতি যাত্রায় বাসটিতে যাত্রীর সংখ্যা ছিলো একেবারে কম। অপর দিকে লবনের বস্তাবোঝাই ট্রাকে ১০/১৫ জন যাত্রী ঢাকা থেকে আসছিলো। তাদের অধিকাংশের বাড়ি নীলফামারীর জলঢাকায়। বাস ও ট্রাক দ্রুত গতিতে একটি অপরটিকে অতিক্রম করার সময় নিয়ন্ত্রণ হারালে এই দুর্ঘটনা ঘটে বলে হাইওয়ে পুলিশ জানায়। দুর্ঘটনার পর বেশ কিছু সময় যানবাহন চলাচলে বিঘ্ন ঘটে।
অপরদিকে বিকেল সাড়ে ৩ টার দিকে একই মহাসড়কে শেরপুর উপজেলার ধনকুন্ডি এলাকায় ঢাকাগামী একটি মাইক্রোবাসের সঙ্গে বিপরীত দিক থেকে আসা বেসরকারি একটি গ্যাস কোম্পানীর লরির সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই মাইক্রোবাস চালক মারা যায়। হাইওয়ে পুলিশ জানায়, ঢাকা থেকে যাত্রী নিয়ে আসার পর মাইক্রোবাসটি আবার ঢাকায় ফিরছিলো। এদিকে ভোর ৫ টার দিকে বগুড়ার শেরপুর উপজেলার মহিপুর জামতলা এলাকায় দু’টি ট্রাকের মুখোমুখী সংঘর্ষে মৃদুল হোসেন নামে এক ব্যক্তি নিহত এবং ৪ জন আহত হয়। নওগাঁগামী একটি ট্রাকের সঙ্গে ঢাকামুখী অপর একটি ট্রাকের এই সংঘর্ষ হয়। ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে। আহতদের বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।
শেরপুর থানার ওসি বিকালে জানান, ৩টি দুর্ঘটনায় নিহত ৮ জনের মধ্যে ৬ জনের প্রাথমিক পরিচায় পাওয়া গেছে।