বদলগাছীতে স্কুল মাঠে হাট বসতে না দেয়ার সিদ্ধান্ত কর্তৃপক্ষে

আপডেট: এপ্রিল ১০, ২০১৭, ১২:০৭ পূর্বাহ্ণ

বদলগাছী প্রতিনিধি


নওগাঁর বদলগাছী পাইলট হাইস্কুল ও মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে ২ বৈশাখ থেকে স্কুল মাঠে হাট বসতে না দেয়ার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্কুল কর্তৃপক্ষ।
গতকাল রোববার বদলগাছী প্রেসক্লাবে প্রেরিত পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক স্বাক্ষরিত একটি পত্রের মাধ্যমে এ তথ্য জানা যায়। বিগত ৬/৭ মাস থেকে স্কুল মাঠ থেকে হাট সরিয়ে নেওয়ার জন্য উপজেলা প্রশাসনের প্রতি বারবার আবেদন জানিয়ে আসছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। স্কুল কর্তৃপক্ষ জানায় প্রতি সপ্তাহে শনিবার ও বুধবার ২ দিন স্কুল মাঠে হাট বসে। হাটের দিন সকাল থেকেই হাজার হাজার জনতার সমাগম ঘটে। ক্রেতা বিক্রেতার কেনাবেচা ও জনতার কোলাহলে স্কুলে শিক্ষাদান ব্যাহত হচ্ছে। তার উপর হকারের মাইকের শব্দে ক্লাসে সমস্যার সৃষ্টি হয়। ছাত্র-ছাত্রীরা স্কুলে যাওয়া আসার পথে হাটুরিয়াদের ভিড়ে বিড়ম্বনার শিকার হয়। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কচিকাচা শিশুদের বেশী সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়। তা নিয়ে অভিভাবকরাও আতঙ্কে থাকে। হাট বসার কারণে স্কুলের খেলার মাঠ নষ্ট হচ্ছে। হাটের কারণে ছেলে মেয়েরা খেলাধুলা করতে পারে না। বিগত ৬ মাস থেকে হাট সরিয়ে নেওয়ার কথা বলে উপজেলা প্রশাসন তালবাহানা করে আসছে। আগামী পহেলা বৈশাখের আগেই স্কুল মাঠ থেকে হাট সরিয়ে নেওয়ার কথা থাকলেও উপজেলা প্রশাসনের কোন উদ্যোগ নেই। বিষয়টি নিয়ে অভিভাবক মহলও উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে।
এ বিষয়ে পাইলট হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক সুরেশ সিংহ জানায়, আগামী ২ বৈশাখ থেকে স্কুল মাঠে হাট বসতে না দেয়ার জন্য চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। কারণ সামনে বর্ষাকাল। বর্ষাকালে স্কুল মাঠে হাট বসায় হাটুরিয়াদের চলাচলে পুরো মাঠ কাদায় পরিপূর্ণ হয়ে যায়। খেলাধুলা তো দূরের কথা ছেলে মেয়েরা স্কুলে যাতায়াত করতে পারে না। অনেকের জামা-কাপড় কাদায় ভরে যায়। এ অবস্থায় শিক্ষার পরিবেশ বহাল রাখতে স্কুল মাঠে হাট বসতে দেয়া সম্ভব না।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহেুসাইন শওকতের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বললে তাৎক্ষণিকভাবে তিনি কোন সিদ্ধান্ত জানাতে পারেন নি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ