বদলগাছী স্কুলের ৭৫টি ব্রেঞ্চ টিন চুরি করে স্বীকারোক্তি দিলেন নৈশ্য প্রহরী

আপডেট: জানুয়ারি ২৩, ২০২২, ৯:৫৪ অপরাহ্ণ

বদলগাছী (নওগাঁ) প্রতিনিধি:


নওগাঁর বদলগাছী মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৭৫টি ব্রেঞ্চ ও ৩০টি ঢেউটিন চুরি করে নিজেই স্বীকারোক্তি দিলেন ঐ বিদ্যালয়ের নৈশ্য প্রহরী আরমান হোসেন রুবেল।

জানা গেছে, করোনা সংক্রমন রোধে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী ৫ম শ্রেণি প্রতিদিন ক্লাস হয় ১.৩০ মিনিট থেকে ৫টা পর্যন্ত। ৪র্থ ও ৩য় শ্রেণি সপ্তাহে ২দিন সাড়ে ৯টা থেকে সাড়ে ১২টা পর্যন্ত এবং ১ম ও২য় শ্রেণি সপ্তাহে ১দিন ক্লাস হয়। এ জন্য স্কুলের সব শ্রেণি কক্ষ ব্যবহার হয় না। এই সুযোগ নিয়ে নৈশ্য প্রহরী রুবেল ৭৫টি ব্রেঞ্চ ও ৩০টি ঢেউটিন রাতে রাতে চুরি করে।

প্রধান শিক্ষক (ভারপ্রাপ্ত) সানিয়া সারমীন বলেন, গত ১৬ জানুয়ারি স্কুলের ঐ কক্ষ গুলির তালা খুলে দেখা যায় ব্রেঞ্চ ও টিন নেয়। নৈশ্য প্রহরীকে জিজ্ঞাসা করলে সে চুরির কথা স্বীকার করে। তারপর আমার বাবা মারা যায়। এজন্যই কয়েক দিনপর ২২ জানুয়ারি ম্যানেজিং কমিটির মিটিং হয়। কমিটির সিদ্ধান্তক্রমে বিষয়টি উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে লিখিতভাবে অবগত করলে শিক্ষা অফিসার তদন্তে আসে স্কুলে এ সময় চুরির দায় লিখিতভাবে স্বীকার করেন নৈশ্য প্রহরী রুবেল।

নৈশ্য প্রহরী আরমান হোসেন রুবেলের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি। স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মো. আব্দুর রাজ্জাক ও প্রধান শিক্ষক (ভারপ্রাপ্ত) সানিয়া সারমীন বলেন, শিক্ষা অফিসার স্যারের নির্দেশক্রমে থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা শিক্ষা অফিসার ফজলুর রহমান বলেন আমি তদন্ত পূর্বক নৈশ্য প্রহরীর বিরুদ্ধে মামলা করার নির্দেশ দিয়েছি এবং তার বিরুদ্ধে যথাযত প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।
থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আতিকুল ইসলাম বলেন আমি এখন ও মামলার আবেদন পায়নি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ