বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় ফার্মেসী বিভাগে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন সম্পর্কিত সেমিনার অনুষ্ঠিত

আপডেট: মার্চ ১, ২০২১, ৯:৪১ অপরাহ্ণ

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:


সমগ্র বিশ্বে কোভিড পরিস্থিতি ও কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিনত হয়েছে। তারই প্রেক্ষাপটে রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা ৭টায় বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসী বিভাগ, COVID-19 Vaccine: Is it safe? Will it work? শীর্ষক এক ভার্চুয়াল সেমিনারের আয়োজন করে। বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসী বিভাগের সহকারী অধ্যাপক নুরুন্নাহার ও সহকারী অধ্যাপক মাহবুবুর রহমানের সঞ্চালনায় সেমিনারটির সভাপতিত্ব করেন ফার্মেসী বিভাগের কো-অর্ডিনেটর প্রফেসর ড. তারান্নুম নাজ।
সেমিনারের শুরুতেই স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোনালিসা মনোয়ার। সেইসাথে সংক্ষিপ্ত ভিডিও প্রদর্শনের মাধ্যমে বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগ বিশেষত ফার্মেসী বিভাগ সম্পর্কে তথ্য প্রদান করেন প্রভাষক নুজহাত তাসনিম আমিন। সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে যুক্ত ছিলেন বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় ট্রাস্টের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান খান। বিশেষ অতিথি হিসেবে যুক্ত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এম. ওসমান গনি তালুকদার, কোষাধ্যক্ষ ও ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য প্রফেসর ড. তারিক সাইফুল ইসলাম, উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. রাশিদুল হক এবং ভারপ্রাপ্ত উপ-উপাচার্য প্রফেসর শহিদুর রহমান।
মূল বক্তা হিসেবে সেমিনারে বক্তব্য প্রদান করেন এসকেন্ড বাংলাদেশের প্রাক্তন পরিচালক, সিডিসি বাংলাদেশের লাইন পরিচালক অধ্যাপক বেনজির আহমেদ। তিনি কোভিড-১৯ ভ্যাক্সিন সম্পর্কে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ও সময়োপযোগী বার্তা তুলে ধরেন (আইডিয়াল ভ্যাক্সিনের বৈশিষ্ট্য, সেইফটি, ভ্যাকসিন ট্রায়ালের স্টেজ সম্পর্কিত তথ্য ইত্যাদি)। বক্তব্য প্রদান করেন স্টার ফার্মেসীর ইনচার্জ ও মালিক ড. শাহ আলম ভূঁইয়া। তিনি কোভিড-১৯ এর বিভিন্ন ভ্যাক্সিনের কার্যকারিতা সম্পর্কে আলোচনা করেন। বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. রশিদুল হক কোভিড-১৯ ভ্যাক্সিন এর সেইফটি এবং কার্যকারিতা নিয়ে আলোচনা করেন। এছাড়াও তিনি সেমিনারে অংশগ্রহণকারীদের বিভিন্ন প্রশ্নের তথ্যবহুল উত্তর ও বৈজ্ঞানিক ব্যাখা প্রদান করেন।
সেমিনারে বক্তারা কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা, পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ও সীমাবদ্ধতা সম্পর্কে বিশদ আলোচনা করেন এবং এটিকে নিরাপদ ভ্যাকসিন হিসেবে অভিহিত করেন। অনলাইনভিত্তিক এই সেমিনারটি জনগণকে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন গ্রহনে উদ্বুদ্ধ করতে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।