বলিভিয়ায় সেনাঅভ্যুত্থানের চেষ্টা, সেনাপ্রধান আটক

আপডেট: জুন ২৭, ২০২৪, ১:২৮ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক :


বলিভিয়ায় বুধবার(২৬ জুন) দেশটির সেনাবাহিনীর একাংশ অভ্যুত্থানের চেষ্টা চালিয়েছে। তবে তাদের সেই চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে।
অভ্যুত্থান প্রচেষ্টায় নেতৃত্ব দেওয়া সেনাপ্রধান জেনারেল হুয়ান হোসে জুনিগাকে আটক করা হয়েছে ।

বুধবার লাতিন আমেরিকার দেশটির রাজধানী লাপাজের ঐতিহাসিক সেন্ট্রাল প্লাজা মুরিলো চত্বরে ট্যাংকসহ অন্যান্য সাঁজোয়া যান নিয়ে জড়ো হতে থাকেন সেনাসদস্যরা। এই চত্বরে বলিভিয়ার প্রেসিডেন্টের বাসভবন ও কংগ্রেস ভবনও রয়েছে। একপর্যায়ে একটি ট্যাংক প্রেসিডেন্টের বাসভবনের ধাতব ফটক ভেঙে ফেলার চেষ্টা চালায়। খবর বিবিসি

তখন নিজের বাসভবনেই ছিলেন প্রেসিডেন্ট লুইস আর্চি। প্রেসিডেন্ট এসময় এক বার্তায় আহ্বান জানান, দেশ আজ অভ্যুত্থান প্রচেষ্টার মুখোমুখি হয়েছে। বলিভিয়ার গণতন্ত্র আবারও হুমকির মুখে পড়েছে। আমি বলিভিয়ার জনগণের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি, আজ গণতন্ত্রের পক্ষে সংঘটিত হওয়া এবং অভ্যুত্থানচেষ্টায় জড়িতদের বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়া প্রয়োজন।

সেনাবাহিনীর এই অভিযানের পর পরই জেনারেল হুয়ানকে তার পদ থেকে বরখাস্ত করা হয়, নতুন সেনাপ্রধান হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয় হোসে উইলসন সানচেজকে। পরে প্রেসিডেন্ট ও নতুন সেনাপ্রধান সেনাসদস্যদের ব্যারাকে ফিরে যাওয়ার দিলে; সেনাসদস্য ও ট্যাংকগুলোকে প্লাজা মুরিলো চত্বর থেকে সরে যেতে দেখা যায়।

আটকের পর সদ্য সাবেক সেনাপ্রধানকে কোথায় নেওয়া হয়েছে, তা জানা যায়নি। বলিভিয়া সরকার ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় দেশটিতে অভ্যুত্থান প্রচেষ্টার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে।
তথ্যসূত্র: বাংলানিউজ

 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ