বাংলাদেশকে সমীহ অস্ট্রেলিয়ান খাওয়াজার

আপডেট: জুন ২৫, ২০১৭, ১:১২ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


বাংলাদেশের বিপক্ষে উসমান খাওয়াজা খেলেছেন মোটে একটা ম্যাচ। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ক্যারিয়ার সেরা ৫৮ রানের ইনিংস খেলেছেন বিশ্বকাপের সেই দেখাতেই। সেখানে খুব একটা সুবিধা করতে না পারা প্রতিপক্ষের প্রতি অস্ট্রেলিয়ার এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানের অগাধ শ্রদ্ধা।
আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তিন সংস্করণ মিলিয়ে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষেই বাংলাদেশের রেকর্ড সবচেয়ে খারাপ। ২৮ ম্যাচে জয় মাত্র একটি, সেটাও এসেছিল এক যুগ আগে। তবে খাওয়াজা মনে করেন, তেমন দিন আর নেই। দেশের মাটিতে বাংলাদেশ এখন প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বী।
“ওরা দেশের মাটিতে খুব ভালো দল, অনেকটা ভারতের মতো। ভারতে যেমন ছিল ওদের উইকেট প্রায় তেমনই। এটা একটা চ্যালেঞ্জ হবে।”
পাকিস্তানে জন্ম নেওয়া অস্ট্রেলিয়ার বাঁহাতি ব্যাটসম্যান খাওয়াজা আগামী আগস্টে প্রথমবারের মতো আসবেন বাংলাদেশে। শুধু তিনি নন, দলের সব সদস্যই বাংলাদেশের বিপক্ষে ও বাংলাদেশের মাটিতে প্রথমবারের মতো টেস্ট খেলবে।
“খুব কঠিন সফর হবে। কারণ, এর আগে আমি কখনও বাংলাদেশে যাইনি। বিভিন্ন প্রতিবেদন অনুযায়ী (বাংলাদেশ) খুব ঘনবসতিপূর্ণ দেশ। ইচ্ছেমত চলাফেরা করা খুব কঠিন। অস্ট্রেলিয়া থেকে একদমই আলাদা।”
দেশের মাটিতে নিজেদের শেষ টেস্ট সিরিজ বাংলাদেশ ১-১ এ ড্র করেছে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। আর শ্রীলঙ্কায় নিজেদের সর্বশেষ টেস্ট সিরিজে ১-১ এ ড্র করেছে মুশফিকুর রহিমের দল।
“মানুষ বাংলাদেশ সম্পর্কে ভাবে, আরে এটা তো বাংলাদেশ, জেতা সহজ হবে। তবে ব্যাপারটা মোটেও তেমন নেই। ওরা দেশের মাটিতে খুব প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ দল। খুব ভালো একটি সিরিজ হতে যাচ্ছে।”
অস্ট্রেলিয়াই সবচেয়ে কম, মাত্র চারটি টেস্ট খেলেছে বাংলাদেশের বিপক্ষে। এর শেষটি সেই ২০০৬ সালে। সেবার প্রথম ম্যাচে ফতুল্লায় হারতে হারতে বেঁচে গিয়েছিল রিকি পন্টিংয়ের দল। পরের ম্যাচে নাইটওয়াচম্যান নেমে জেসন গিলেস্পি করেছিলেন অবিশ্বাস্য এক কাণ্ড- দ্বিশতক। ওই ম্যাচই তার ক্যারিয়ারের শেষ টেস্ট। সাবেক এই পেসার শুভ কামনা জানিয়ে রেখেছেন স্টিভেন স্মিথদের। “বাংলাদেশ ক্রিকেট খেলার জন্য খুব ভালো জায়গা। ওখানে সময়টা হবে বিস্ময়কর এবং ওরা সত্যিই উপভোগ করবে।” আগামী ১৮ আগস্ট বাংলাদেশে আসবে অস্ট্রেলিয়া দল। তার জন্য ইতিমধ্যেই শক্তিশালী দল ঘোষণা করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া।-বিডিনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ