বাংলাদেশের জয়ে সৌম্যকে ফিরে পাওয়া!

আপডেট: ডিসেম্বর ১৫, ২০১৬, ১২:০৭ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



অস্ট্রেলিয়ায় গিয়েই কি তবে সৌম্য সরকার নিজেকে ফিরে পেতে শুরু করলেন! ২০১৫ অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড বিশ্বকাপে তার আবির্ভাব। বিশ্বকাপের মতো বড় আসর দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার শুরু করে দারুণ ব্যাটিংয়ের পরিচয় দিয়েছিলেন। গতকাল বুধবার সিডনি সিক্সার্সের বিপক্ষে বাংলাদেশের দাপুটে ৭ উইকেটের জয়ে দারুণ উজ্জ্বল সৌম্য।
কি করেছেন সৌম্য? সিক্সার্সের ইনিংসের একেবারে শেষ ওভারে বল হাতে পেয়েছিলেন। প্রতিপক্ষের রান তখন দ্রুত উঠছে। অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা যে ঠিক সিদ্ধান্ত নিলেন তার প্রমাণ ওই ১ ওভারেই দিয়েছেন সৌম্য। মিডিয়াম পেসার সিক্সার্সের ৩ উইকেট তুলে নিলেন। শেষ ওভারটিতে রান দিলেন মাত্র ৫। আর ওই এক ওভারের বোলিংই এই ম্যাচে বাংলাদেশের সেরা বোলার বানিয়ে দিয়েছে সৌম্যকে।
৯ উইকেটে ১৬৯ রান তুলেছিল সিক্সার্স। বৃষ্টির কারণে কার্টল ওভারের ম্যাচে টার্গেটটা দাঁড়ায় ৮ ওভারে ৮৪। ইমরুল কায়েসের সাথে ব্যাটিং ওপেন করলেন। ঝড় তুললেন সৌম্য শুরুতেই। চতুর্থ ওভারে আউট হলেন। কিন্তু দলের রান তখন ৩৭। জয়ের ভিত হয়ে গেছে। সৌম্য ৯ বলে ৩ চার ও ১ ছক্কায় ২০ রান নিয়ে ফিরেছেন।
গেল বিশ্বকাপে ২০, ২৮, ২৫, ২, ৪০, ৫১, ২৯ রানের ইনিংসগুলো সৌম্যের। বড় বড় প্রতিপক্ষের বিপক্ষে ছিলেন সাবলীল। এরপর দেশের মাটিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে একটি সেঞ্চুরিও করেছেন ওয়ানডেতে। টেস্ট অভিষেকও হয়েছে। মনে হচ্ছিল তামিম ইকবালের যোগ্য ওপেনিং পার্টনার এই বাঁ হাতি ব্যাটসম্যান।
কিন্তু শেষ বছর দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দুর্দান্ত অপরাজিত ৮৮ ও ৯০ রানের পর সৌম্যকে আর খুঁজে পাওয়া গেল না। না ঘরোয়া ক্রিকেটে। না আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে। আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে ৩ ম্যাচে ০, ২০ ও ১১’র পর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ খেলার সুযোগ পেলেন না। মাত্র শেষ করা বিপিএলেও ১২ ম্যাচে ১৩৫ রান। সৌম্য হারিয়েই গিয়েছিলেন!
কিন্তু টিম ম্যানেজমেন্ট এত কিছুর পরও ২৩ বছরের সৌম্যর ওপর ভরসা রেখেছে। যে বিশ্বকাপ ও যে অস্ট্রেলিয়ায় তারকার মতো তার শুরু সেই মাটিতেই যেন ফেরার ইঙ্গিত দিলেন প্রতিভাবান ব্যাটসম্যান। ১৬ ডিসেম্বর আরেকটি প্রস্তুতি ম্যাচ। তারপর নিউজিল্যান্ড সফর। সৌম্য কঠিন সফর শুরুর আগে নিজেকে খুঁজে পেলে তাতে যে টাইগার ক্রিকেটেরই লাভ!

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ