‘বাংলাদেশ-সৌদির সামরিক ও নিরাপত্তা সহযোগিতা বাড়বে’

আপডেট: আগস্ট ১১, ২০২২, ১০:৩৩ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক:


বাংলাদেশের সঙ্গে সৌদি আরবের সামরিক ও নিরাপত্তা সহযোগিতা বাড়বে বলে প্রত্যাশা করেছেন ঢাকায় নিযুক্ত সৌদি রাষ্ট্রদূত এসসা ইউসেফ এসসা আল দুহাইলান।

বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) সৌদি দূতাবাসে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।
সৌদি রাষ্ট্রদূত বলেন, আগামীতে বাংলাদেশের সঙ্গে সৌদি আরবের সামরিক সহযোগিতা বাড়বে বলে আশা করছি। এ লক্ষ্যে দু’দেশের মধ্যে সামরিক ও নিরাপত্তা সহযোগিতা নিয়ে সমঝোতা সইয়ের পরিকল্পনা আমাদের রয়েছে।

বৈশ্বিক জ্বালানি তেলের পরিস্থিতিতে সৌদি আরব বাংলাদেশকে সহযোগিতা দেবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমি বলতে পারবো না। এটা আমাদের মন্ত্রণালয় বলতে পারবে। আর বাংলাদেশে সৌদি আরবের একটি প্রতিনিধি দল সফর করবে, তখন এনার্জি সহযোগিতা বিষয়ে আলোচনা হবে।

সৌদি রাষ্ট্রদূত বলেন, সৌদি আরবে বাংলাদেশ থেকে আগের চেয়ে বেশি কর্মী যাচ্ছেন। এখন দূতাবাস থেকে আমরা প্রতিদিন ৫ থেকে ৮ হাজার ভিসা ইস্যু করছি।

তিনি বলেন, ওয়ার্ল্ড এক্সপো ২০৩০ আয়োজনে সৌদি আরবের প্রতি বাংলাদেশ সমর্থন দিয়েছে। এ জন্য বাংলাদেশের প্রতি আমরা কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

এক প্রশ্নের উত্তরে সৌদি রাষ্ট্রদূত বলেন, বাংলাদেশে সৌদির সহায়তা কমেনি। সহযোগিতা অব্যাহত রয়েছে। ২০১৫ সাল থেকে বাংলাদেশকে বিভিন্ন প্রকল্পে এ পর্যন্ত ৬০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের বেশি সহায়তা দিয়েছে সৌদি আরব। প্রতি বছর এ সহায়তা বাড়ছে। বাংলাদেশের সঙ্গে সৌদি আরবের দীর্ঘ মেয়াদি ও শর্তহীন বন্ধুত্ব রয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে বাদশা সালমান হিউম্যানিটারিয়ান এইড অ্যান্ড রিলিফ সেন্টারের কার্যক্রম তুলে ধরেন সৌদি রাষ্ট্রদূত।
তথ্যসূত্র: বাংলানিউজ