বাগমারায় জমি জালিয়াতির দায়ে যুবক গ্রেফতার

আপডেট: June 13, 2020, 9:50 pm

বাগমারা প্রতিনিধি:


গ্রেফতারকৃত উজ্জল হোসেন- সোনার দেশ

রাজশাহীর বাগমারায় জমি জালিয়াতির দায়ে উজ্জল হোসেন (২৯) নামের যুবককে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। সে উপজেলার মাড়িয়া ইউনিয়নের বড়মাড়িয়া গ্রামের ওয়াজেদ আলীর ছেলে। গ্রেফতারকৃত উজ্জল হোসেনকে শনিবার (১৩জুন) বিকেলে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বড়মাড়িয়া গ্রামের ওয়াজেদ আলীর ছেলে উজ্জল হোসেন বিভিন্ন সময় বিভিন্ন স্থানে সাধারণ মানুষের সঙ্গে নানাভাবে প্রতারণা করে আসছিল। তার বিরুদ্ধে একাধিক প্রতারণার অভিযোগ উঠলেও প্রমাণ না পেয়ে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে পারেনি।
২০১৯ সালের মে ও জুন মাসে উজ্জল হোসেন উপজেলার মাড়িয়া মৌজায় আরএস খতিয়ান ১০০ ও ৩৭৪, প্রস্তাবিত খতিয়ান ৬৪৩, হোল্ডিং নম্বর ৬৭০, জমির পরিমাণ ৭০ শতাংশ উপজেলার বাসুপাড়া ইউনিয়নের ব্যবসায়ী শরিফুল ইসলামের কাছে নগদ ১০ লাখ টাকার বিনিময়ে ৩৪৯৩ ও ৪১২৬ নম্বর দুইটি দলিল ভবানীগঞ্জ সাবরেজিস্ট্রার অফিসে রেজিস্ট্রি করে দেন। ব্যবসায়ী শরিফুল ইসলামের কাছে জমি বিক্রির পূর্বে ২০১৭ সালে ৪৮৭৬ এবং ২০১৮ সালে ৩৩৯৫ নম্বর দলিল মূলে একই জমি ভবানীগঞ্জ মহল্লার আবদুস সোবহান নামের এক ব্যবসায়ীর কাছে বিক্রি করেন। শরিফুল ইসলাম জমির দখল নিতে গেলে আবদুস সোবহান জমির মালিক বলে দাবি করলে উজ্জলের প্রতারণার রহস্য বেরিয়ে আসে।
শরিফুল ইসলাম জানতে পারেন উজ্জল হোসেন জমিটি তার কাছে বিক্রির পূর্বেই আবদুস সোবহানের কাছে বিক্রি করেছে। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় লোকজন মিমাংসায় বসলে উজ্জল হোসেন টাকা পরিশোধের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সেখান থেকে চলে যায়। দীর্ঘদিন অতিবাহিত হওয়ার কারণে উজ্জল হোসেন ব্যবসায়ী শরিফুল ইসলামকে জমির টাকা ফেরত দিবে না বলে সাফ জানিয়ে দেয়। উজ্জল হোসেনের এমন কর্মকাণ্ডে ব্যবসায়ী শরিফুল ইসলাম বাগমারা থানায় একটি প্রতারণা মামলা দায়ের করেন। পুলিশ অভিযান চালিয়ে রাতেই উজ্জল হোসেনকে মাড়িয়া এলাকা থেকে গ্রেফতার করে।
ব্যবসায়ী শরিফুল ইসলামের অভিযোগ, উজ্জল হোসেন দীর্ঘদিন থেকে এলাকায় প্রতারণা করে আসছে। এলাকায় তার বিরুদ্ধে হাজারো প্রতারণার অভিযোগ রয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।
এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে বাগমারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আতাউর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, জমি জালিয়াতির মাধ্যমে প্রতারণা করায় আসামী উজ্জল হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে থানায় প্রতারণা মামলা হওয়ার পর পরই পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে। তদন্ত শেষে উজ্জল হোসেনের সঙ্গে সম্পৃক্তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।